368 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

আমার খুব দুর্ভাগ্য’ ম্যান্ডেলার সঙ্গে দেখা না হওয়া

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

পথিক রিপোর্ট: ২০০০ সালে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হয় লরিয়াস ওয়ার্ল্ড স্পোর্টস অ্যাওয়ার্ডস। তাতে ঐতিহাসিক বক্তব্য দেন দক্ষিণ আফ্রিকার অবিসংবাদিত নেতা নেলসন ম্যান্ডেলা। বিংশ শতাব্দীর ২৫ মে অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী ভাষণে তিনি বলেন, বিশ্বকে পরিবর্তন করে দেয়ার ক্ষমতা আছে খেলাধুলার।

সম্প্রতি সেই জ্বালাময়ী বক্তব্যের ২০ বছরপূর্তি হয়েছে। শ্রদ্ধার সঙ্গে তা স্মরণ করেছেন সুইজ্যারল্যান্ডের টেনিস কিংবদন্তি রজার ফেদেরার। একই সঙ্গে ’মাদিবার’ সঙ্গে কখনও সাক্ষাৎ না হওয়ায় আক্ষেপে পুড়ছেন তিনি। চরম হতাশা প্রকাশ করেছেন সুইস তারকা।

ফেদেরার বলেন, ম্যান্ডেলার সঙ্গে কখনও দেখা করার সুযোগ হয়নি আমার। এটা চরম দুর্ভাগ্য। ২০০৪ সালে দক্ষিণ আফ্রিকায় ছিলাম আমি। সেই বছরই দেশে ফিরি। এর পর ১০ বছর সেখানে যাইনি। ২০১৩ সালে মারা যান মাদিবা। আমার স্পষ্ট মনে পড়ে, শেষদিকে তার সঙ্গে দেখার করার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা বাস্তবে প্রতিফলন ঘটেনি।

বিশ্বের ৪ নম্বর র্যাং কিংধারী টেনিস তারকা বলেন, তো সেই মহাপুরষ সম্পর্কে কি বলব? আমি মনে করি, অনেক ক্ষেত্রে তার অবিশ্বাস্য প্রভাব ও অনুপ্রেরণা রয়েছে। আমার বাবা সুইস। কিন্তু আমার মা প্রোটিয়া। ফলে সাউথ আফ্রিকার পার্সপোর্ট আছে আমার। আমার সন্তানদের রয়েছে। সেই দেশটির সঙ্গে রক্তের সংযোগ থাকায় আমি গর্ববোধ করি।

ম্যান্ডেলা দক্ষিণ আফ্রিকার বর্ণবাদবিরোধী আন্দোলনের বিপ্লবী ও রাজনৈতিক নেতা। গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত দেশটির প্রথম রাষ্ট্রপতি তিনি। সর্বপ্রথম কৃষাঙ্গ রাষ্ট্রপ্রধানও। আফ্রিকান জাতীয়তাবাদ ও সমাজতন্ত্রের আদর্শের ধারক ও বাহক রাজনীতির এ পুরোধা ব্যক্তিত্ব। মূলত তিনিই সেই অঞ্চলে সাদা-কালোর বিভেদ ঘোচান।

ফেদেরার বলেন, ইতিবাচক পন্থায় দেশে বৈপ্লবিক পরিবর্তন সাধন করেন ম্যান্ডেলা। সুতরাং তার প্রতি কৃতজ্ঞ থাকাটা আমাদের উচিত। বিনম্র চিত্তে তাকে স্মরণ করা দরকার।

তথ্যসূত্র: টেনিস ওয়ার্ল্ড/রিপাবলিক ওয়ার্ল্ড

জুনায়েদ / পথিক নিউজ