634 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

একজন নাজমুল হাসানের মানবতা

হালিম সৈকত,  কুমিল্লা: নাজমুল হাসান তিতাস উপজেলার বলরামপুর ইউনিয়নের আকালিয়া গ্রামের কৃতি সন্তান।
ব্যবসায়িকক্ষেত্রে হয়েছেন জিরো থেকে হিরো।  তেমনি মানবতার সেবায় নিজের জাত চিনিয়েছেন তিনি।  করেনাকালীন সময়ে এর প্রমাণ তিনি দিয়েছেন।  শুধু করোনাকালীন সময়েই নয়। এখনও করে যাচ্ছেন মানবসেবা।  প্রতিনিয়তই চোখে পড়ে তার মানবসেবার চিত্রকর্ম।
তিতাস উপজেলার একজন  দায়িত্বশীল ও জনদরদি ব্যক্তির নাম জনাব নাজমুল হাসান ভাই  বাতাকান্দি বাজারে সকলের পরিচিত তারই প্রেক্ষিতে  অসহায় ও এতিম মারুফ নামে প্রতিবন্ধী একটি ছেলেকে সতায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন প্রিয়  নাজমুল হাসান ভাই।
ছেলেটি গত ৩ দিন আগে দূর্ঘটনায় পড়ে মাথায়  মারাত্মক আঘাত পেয়ে  গুরুতর অবস্থায়  ঢাকার একটি প্রাইভেট হাসপাতালে আইসিইউতে  ভর্তি হয়।
এই ঘটনা শোনার পর তাতক্ষনিক নাজমুল হাসান বাড়ি থেকে ঢাকায় চলে যান এবং অনেক খোঁজাখুজির পর তার ঠিকানা বের করে তাকে দেখতে হাসপাতালে ছুটে যান  এবং তার শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নিয়ে চিকিৎসা বাবত ২০ হাজার টাকা প্রদান করেন।
বাচ্চাটি যেন পরিপূর্ণ সুস্থ্য হয়ে আবার আমাদের সকলের মাঝে ফিরে আসতে পারে তার জন্য  তিনি তিতাসবাসীর কাছে তিনি দোয়া চেয়েছেন এবং সবাইকে অনুরোধ করেছেন এই অসহায় এতিম বাচ্চাটির জন্য দোয়া করতে আল্লাহ যেন তাকে সুস্থতা দান করে সবার মাঝে ফিরিয়ে দেন।
[Sassy_Social_Share total_shares="ON"]