273 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

করোনার টিকা নিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট-ইলেক্ট জো বাইডেন।

জো বাইডেন

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
 

ফাইজারের কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ গ্রহণ করলেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বিজয়ী জো বাইডেন।

তার এই টিকা গ্রহণের দৃশ্য টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়েছে।

মিস্টার বাইডেন বলেছেন যে আমেরিকানদের জন্য এটি নিরাপদ তা বোঝাতেই তিনি টিকা নিয়েছেন।

এর আগে বর্তমান ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স এবং সংসদের নিম্নকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি টিকা গ্রহণ করেন।

এদিকে গত সপ্তাহে মডার্নার টিকার অনুমোদন দেয়ার পর রোববার থেকে দ্বিতীয় ভ্যাকসিন হিসেবে এটি দেয়া শুরু হয়েছে।

এখন পর্যন্ত পাঁচ লাখ আমেরিকান টিকা গ্রহণ করেছেন। আমি এটা করছি যাতে ভ্যাকসিন নাগালে আসা মাত্র মানুষ এটি গ্রহণের জন্য প্রস্তুতি নিতে পারে,” ডেলাওয়ারে টিকা নেয়ার সময় বলছিলেন মিস্টার বাইডেন।

“এ নিয়ে উদ্বেগের কিছু নেই”।

তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে টিকাদান কর্মসূচি শুরু কারণে ট্রাম্প প্রশাসন “কিছুটা ধন্যবাদ পাওয়ার যোগ্য”।

এর আগে মিস্টার বাইডেনের স্ত্রী জিল বাইডেন টিকা গ্রহণ করেন।

নবনির্বাচিত ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস এবং তার স্বামী আগামী সপ্তাহে ভ্যাকসিনটির প্রথম ডোজ গ্রহণ করবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

শপথ গ্রহণের প্রথম একশো’ দিনের মধ্যে অন্তত দশ কোটি মানুষকে টিকা দেয়ার লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে বাইডেন টিম।

এবারের এই মহামারিতে যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত তিন লাখেরও বেশি মানুষ মারা গেছে।

ওদিকে গত ১৩ই ডিসেম্বর ডোনাল্ড ট্রাম্প টুইট করে বলেছিলেন যে তিনি নিজে এখনও টিকা নেয়ার সময় নির্ধারণ করেননি, তবে যথাসময়ে তা করার দিকে তাকিয়ে আছেন।

যুক্তরাষ্ট্রে কে কখন টিকা পাবে

ইউএস সেন্টার ফর ডিজেজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন বা সিডিসি আমেরিকানদের টিকা দেয়ার বিষয়ে একটি গাইডলাইন প্রকাশ করেছে।

প্রথম ধাপে দুই কোটির বেশি স্বাস্থ্য কর্মী আর ৩০ লক্ষ বয়স্ক নাগরিককে টিকা দেয়া হবে।

দ্বিতীয় পর্যায়ে করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সম্মুখ যোদ্ধাদের পাশাপাশি ৭৫ বছর বা এর বেশি বয়সীরা টিকা পাবেন। পাশাপাশি পোস্টাল সার্ভিস, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, গণপরিবহন, গ্রোসারি শপ, নির্মাণ, খাদ্য ও কৃষি খাতের লোকজন টিকা পাবেন। এই ধাপটি জানুয়ারিতে শুরু হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

তৃতীয় পর্যায়ে ৬৫ বছর বা এর বেশি বয়সী, বিশেষ করে যারা নানা কারণে চিকিৎসা পাচ্ছে বা ঝুঁকিতে আছে, তারা টিকা পাবেন। এমন ধরনের প্রায় ১২ কোটি মানুষ আছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে।

সূত্রঃ বিবিসি বাংলা