274 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

কালীগঞ্জে বাল্য বিয়ে বন্ধঃ কনের বাবাকে জরিমানা,বর পালালো মাঝপথ থেকে

  • 14
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    14
    Shares

মানিক ঘোষঃ  বিয়ে বাড়ীতে প্রায় সব আয়োজন সম্পন্ন। সময় দুপুর তখন ১২ টা। আর কিছু সময়ের মধ্যেই চলে আসবে বর পক্ষ। কিন্তু এরিমধ্যে পুলিশ সহ কনের বাড়িতে হাজির হলেন কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার সূবর্ণা রানী সাহা। তিনি এ সময় অপ্রাপ্ত বয়স্ক কন্যার বাল্য বিয়েটি বন্ধ করে দেন। সেইসাথে বাল্য বিয়ে আয়োজন করার অপরাধে মোবাইল কোট করে কনের বাবা আব্দুল হাকিমকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

এদিকে এমন খবর পেয়েই মাঝপথ থেকেই পালিয়ে যান বর সহ তাদের লোকজন। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার রাখালগাছি ইউনিয়নের সুবিদপুর গ্রামে।

 

বর যাত্রীদের খাবার

কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্টেট সূবর্ণা রানী সাহা জানান, বাল্য বিয়ে দেওয়া হচ্ছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে তিনি বুধবার দুপুর ১২ টার দিকে সুবিদপুর গ্রামের কনের বাড়িতে হাজির হন। সেখানে দেখেন বিয়ে বাড়ির প্রায় সকল আয়োজন সম্পন্ন। এখনো বরপক্ষ আসেনি। তাদের জন্য খাবার ও প্যান্ডেল করে চেয়ার টেবিল সাজানো রয়েছে। তিনি এ সময় বিয়ের কনেকে ডেকে নিয়ে দেখেন তার বয়স ১৮ বছর পূর্ন হয়নি। এজন্য কনের বাল্য বিয়েটি বন্ধ করে দেওয়া হয়। এদিকে কনের বাড়িতে ইউএনও পুলিশের অভিযানের খবর পেয়ে মাঝপথ থেকে পালিয়ে যান বরসহ তাদের লোকজন।

 

বর যাত্রীদের বসার স্থান

 

ইউএনও আরো জানান, বাল্য বিবাহের আয়োজন করার অপরাধে তিনি ওই বাড়িতে মোবাইল কোট করে বাল্যবিবাহ নিরোধ আইনে কনের বাবাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এছাড়াও ১৮ বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত মেয়ের বিয়ে না দেওয়া হয় এজন্য কঠোর নির্দেশনা দিয়ে আসেন।

  • 14
    Shares
  • 14
    Shares