646 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

ক্রসফায়ারের ভয় দেখিয়ে পুলিশের বিরুদ্ধে মামলা তুলে নিতে চাপ

পথিক রিপোর্ট: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া থানার পাঁচ পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ক্রসফায়ারের ভয় দেখিয়ে অর্থ আদায়ের অভিযোগে মামলা হয়েছিল। সেই মামলা তুলে নিতে এখন চাপ প্রয়োগের অভিযোগ উঠেছে অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে।

আখাউড়ার ওই পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে মামলা করেন স্থানীয় বাসিন্দা মো. হারুন মিয়া। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (আখাউড়া) আদালতে দায়ের করা মামলার আরজিতে তিনি বলেন, মাদক বিক্রেতাদের পক্ষ নিয়ে পুলিশ তাঁকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করেন এবং ক্রসফায়ারের ভয় দেখান। তারপর টাকা দাবি করেন। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানালে তাঁকে ক্রসফায়ারে হত্যারও হুমকি দেওয়া হয়।

আদালত আদেশে পরিদর্শক পর্যায়ের কাউকে দিয়ে ঘটনাটি তদন্ত করে এক মাসের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।

হারুন মিয়া  অভিযোগ করেন, বুধবার মামলার পর থেকে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেল পর্যন্ত তাঁকে মুঠোফোনে ছয় থেকে সাতবার ফোন করে মামলা তুলে নিতে চাপ দেওয়া হয়েছে। গতকাল ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আদালতে গেলে আখাউড়া থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই নিতাই চন্দ্র দাস, মামলার আসামি এসআই হুমায়ুন কবীর ও মতিউর রহমান এবং এএসআই খোরশেদ আলম সাধারণ পোশাকে তাঁর সঙ্গে দেখা করেন। তাঁরা বৃহস্পতিবারের মধ্যে মামলা তুলে নিতে বলেন। পরে দুপুর ১২টা থেকে সাড়ে ১২টার মধ্যে একটি অপরিচিত নম্বর থেকে একটি ফোন আসে। তখনো তাঁকে ফোন করে বলা হয় মামলা না তুললে ক্রসফায়ার করা হবে।

আখাউড়া থানার সেকেন্ড অফিসারের দায়িত্বে থাকা উপপরিদর্শক (এসআই) নিতাই চন্দ্র দাস প্রথম আলোকে বলেন, ‘অভিযোগটি সত্য নয়। আমরা কোর্টে যাইনি। অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা।’

সুত্র: প্রথম আলো

[Sassy_Social_Share total_shares="ON"]