196 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

গাউছিয়া কমিটির আহবানে মোস্তফা হাকিম ওয়েলফেয়ার সোসাইটি বিনামূল্যে অক্সিজেন সরবরাহ করছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মুহাম্মদ রফিকুল ইসলামঃ-

বৈশ্বিক মহামারী প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস যখন দেশের সবচেয়ে বেশী পণ্য আমাদনি রপ্তানিকারী বন্দরগনর চট্টগ্রামে কে কাপিয়ে তুলছে। তখন করোনা সংক্রমণ রোধে এই স্বাধীন সার্বভৌমত্বের বৃহত্তম অরাজনৈতিক আধ্যাত্মিক ধর্মীয় সংগঠন গাউছিয়া কমিটি বাংলাদেশ এগিয়ে এসেছে। এই বন্দরনগরী চট্টগ্রাম দেশ-বিদেশে বারআউলিয়ার পূণ্যভূমি নামেও খ্যাত। আর এই বারআউলিয়ার পূণ্যভূমি চট্টগ্রামসহ দেশের সর্বসাধারণ কে প্রাণঘাতী মহামারী করোনা ভাইরাস এর সংক্রমণ থেকে নিরাপদ ও এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে অথবা করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত লাশ দাফনে কাফনে করোনা ভাইরাস সনাক্তের শুরু থেকেই দেশব্যাপী কাজ করে আসছে গাউছিয়া কমিটি বাংলাদেশ এর সদস্যগন। যার নাম করণ করেছেন পৃথিবীর সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মহা মানব হযরত মোহাম্মদ মোস্তফা আহমদ মুজতবা (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) এর ৪০ তম বংশধর হযরত হাফিজ ক্বারী সৈয়দ মুহাম্মদ তৈয়ব শাহ (রহ.) । গাউছিয়া কমিটি বাংলাদেশ মানুষের কল্যাণ সাধন করতে ১৯৮৬ সালে প্রতিষ্ঠা লাভ করে।

সাম্প্রতিক সময়ে চট্টগ্রামে যখন করোনা আক্রান্ত রোগী ও মৃত্যুর সংখ্যা অধিক হারে বৃদ্ধি পেতে থাকে তখন এই গাউছিয়া কমিটি বাংলাদেশ তাদের কার্যক্রমের গতি আরো বৃদ্ধি করে দিয়েছে। অক্সিজেনের অভাবে যখন করোনা আক্রান্ত ও করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ছে তখন এই অক্সিজেনের কৃত্রিম সংকট দূর করতে গাউছিয়া কমিটি বাংলাদেশ এর সদস্যগন চট্টগ্রামের বিভিন্ন দানবীরগনের দ্বারস্থ হতে লাগল। করোনা আক্রান্ত রোগীদের বাচাতে ও মৃত্যুর সংখ্যা কমাতে গাউছিয়া কমিটি বাংলাদেশ এর তৎপরতা দেখে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে জেগে উঠেছে চট্টগ্রামের বিভিন্ন সূফীবাদী ও মানবতাবাদী দানবীর ব্যক্তিবর্গ।

দেশের বৃহত্তম আধ্যাত্মিক ও ধর্মীয় সংগঠন গাউছিয়া কমিটি বাংলাদেশ এর আহবানে আলহাজ্ব সাইফুল আলম মাসুদ এর নেতৃত্বে বৃহত্তম ব্যবসায়িক সংস্থা এস আলম গ্রুপ এবং চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র আলহাজ্ব মনজুরুল আলমের সহযোগীতায় মোস্তফা হাকিম ওয়েলফেয়ার সোসাইটি বিনামূল্যে অক্সিজেন সরবরাহ করার বহুমুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এরিমধ্যেই এস আলম গ্রুপের সহযোগিতায় চট্টগ্রামের আন্দরকিল্লার সেন্ট্রাল জেনারেল হাসপাতাল সহ কয়েকটি হাসপাতাল অক্সিজেনের আওতায় এসেছে। ক্রমান্বয়ে চট্টগ্রামের সকল বেসরকারি হাতপাতালেও এ অক্সিজেন সরবরাহ প্রক্রিয়া অব্যাহত থাকবে।

গাউছিয়া কমিটি বাংলাদেশ এর সদস্য সচিব এড. মোসাহেব উদ্দিন বখতিয়া বরলে, নিত্যনৈমিত্তিক যখন করোনা আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ছে। তখন এই বন্দরনগরীতে দেখা দিয়েছে অক্সিজেনের কৃত্রিম সংকট। আর সংকট কে কাজে লাগিয়ে কিছু অবৈধ অসাধু ব্যবসায়ী, সুযোগ সন্ধানি চিকিৎসক ও হাসপাতাল মালিকগন অধিক মুনাফার নেশায় অক্সিজেনের কৃত্রিম সংকট কে আরো তীব্রতর করে তুলেছে। একতো প্রাণ বাঁচানোকারী অক্সিজেনের কৃত্রিম সংকট, অন্য দিকে অবৈধ অসাধু ব্যবসায়ী, সুযোগ সন্ধানি চিকিৎসক ও হাসপাতাল মালিকের অধিক মুনাফার লোভ।

এই সুযোগ সন্ধানিদের কাল ছোবল থেকে চট্টগ্রামের করোনা আক্রান্ত রোগীকে বাচাতে আমরা হাসাপাতালে হাসপাতালে বিনামূল্যে অক্সিজেন সরবরাহ করার চিন্তা করেছি। আমাদের কে সার্বিক ভাবে সহযোগিতা করছেন চট্টগ্রামের বৃহত্তম ব্যবসায়িক সংস্থা এস আলম গ্রুপ এবং চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র আলহাজ্ব মনজুরুল আলম। আমরা তাদের প্রতি কৃতজ্ঞ। হাসপাতালে বিনামূল্যে অক্সিজেন সরবরাহকালে এড. মোসাহেব উদ্দিন বখতিয়ার চট্টগ্রামসহ দেশের করোনা আক্রান্ত রোগীদের বাচাতে বিনামূল্যে অক্সিজেন সরবরাহ করতে চট্টগ্রামের দেশের সকল বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহবান জানান।