106 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের ডাক প্রধানমন্ত্রীর, ৩ বিষয়ে গুরুত্বারোপ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, ফাইল ছবি

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

জাতীয়ঃ  বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের ডাক দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সে জন্য তিনটি ভিত্তির ওপর গুরুত্বারোপ করেন তিনি। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে আজ শনিবার চতুর্থ শিল্পবিপ্লব আন্তর্জাতিক সম্মেলনের সমাপনী অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তার কন্যা।

রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, চতুর্থ শিল্পবিপ্লবে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি উদ্ভাবনে শিল্পের বিকাশ, প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত কর্মীবাহিনী তৈরি এবং পরিবেশ সংরক্ষণের ওপর গুরুত্ব দিতে হবে। জাতির পিতা এই তিনটি বিষয়কে দেশের অন্যতম দায়িত্ব হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করেছেন।

সংবিধানের ১৬ অনুচ্ছেদে জীবনযাত্রায় বৈষম্য দূরীকরণে শিল্পের বিকাশ, ১৭/খ অনুচ্ছেদে সময়ের প্রয়োজনে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত নাগরিক সৃষ্টি এবং ১৮/ক অনুচ্ছেদে বর্তমান-ভবিষ্যৎ নাগরিকদের জন্য পরিবেশ সংরক্ষণের বিষয় উল্লেখ করার কথা জানান শেখ হাসিনা।

এ ছাড়া সদ্য স্বাধীন দেশের অর্থনীতি সচল রাখতে ভারতের সহায়তায় নোট ছাপিয়ে বাজারে সরবরাহ, শিল্প-কলকারখানা ও ব্যাংক-বিমা জাতীয়করণ এবং পরিত্যক্ত ৫০০ শিল্পপ্রতিষ্ঠান চালু করে বঙ্গবন্ধু সরকার। পরবর্তীতে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন প্রতিষ্ঠা, কুদরত-ই-খুদা শিক্ষা কমিশন গঠনসহ কৃষি ও শিল্প খাতে অভূতপূর্ব অগ্রগতি সাধন করা হয়।

১৯৭৪-৭৫ অর্থবছরে বাংলাদেশ ৯ শতাংশের বেশি জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জিত হয়েছিল উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, সেটি ধরে রাখতে পারলে ১০ বছরের মধ্যেই স্বপ্নের ‘সোনার বাংলাদেশ’ হতো। এ সময় মানুষের জীবনযাত্রার মানোন্নয়ন, নতুন পণ্যের বাজার সৃষ্টি এবং কর্মসংস্থানের ওপর গুরুত্বারোপ পরে তিনি।

সম্মেলনে বঙ্গবন্ধু হত্যার ২১ বছর পর ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগের ফের ক্ষমতায় ফেরা, ২০০৮ সাল থেকে এখন পর্যন্ত ক্ষমতায় থেকে নেয়া বিভিন্ন কর্মকাণ্ড তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বিশেষ করে শিল্প বিকাশ, প্রশিক্ষিত জনশক্তি তৈরি এবং পরিবেশ রক্ষা সংক্রান্ত কার্যক্রমের বিষয়ে উল্লেখ করেন তিনি।

 

মো:মনির হোসেন / পথিক নিউজ