260 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

ছাত্রসেনা ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর ও পৌর শাখার উদ্যোগে ফারুকীর ৬ষ্ঠ শাহাদাত বার্ষিকী স্মরণসভা অনুষ্ঠিত।

  • 64
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    64
    Shares

মুহাম্মদ রফিকুল ইসলামঃ-

শোহাদায়ে কারবালা ও বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য শহীদে মিল্লাত আল্লামা নূরুল ইসলাম ফারুকী (রহঃ)’র ৬ষ্ঠ শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনা ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা ও পৌর শাখার উদ্যোগে স্মরণসভা ও প্রশিক্ষণ কর্মশালা অদ্য ২২ আগস্ট-২০, শনিবার সকাল ১০ ঘটিকায় জেলা পার্টি অফিসে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সভাপতি, নবীনগর বীরগাঁও নজরদৌলত রূপশাহী দরবার শরীফে পীর সাহেব, পীরে তরিকত আল্লামা মুফতি নাজিম উদ্দীন আল-ক্বাদরী। প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের কেন্দ্রীয় যুগ্ম-সাংগঠনিক সচিব জননেতা আলহাজ্ব এড. মুহাম্মদ ইসলাম উদ্দিন দুলাল। এ সময় তিনি বলেন, আগষ্ট মাস ইতিহাসের কয়েকটি শোকাবহ ট্র‍্যাজেটির মাস। বিশেষ করে, মুক্তিযোদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী সুন্নীয়ত প্রতিষ্ঠা বীর সিপাহশালা, আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আত বাংলাদেশ ও বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য শহীদে মিল্লাত আল্লামা নূরুল ইসলাম ফারুকী (রহঃ)’র নৃশংস হত্যা সুন্নী অঙ্গনে এক কাল অধ্যায়ের সূচনা হয়েছে। তিনি ছিলেন সুন্নীয়ত প্রতিষ্ঠার অগ্রদূত সত্য ও সাহসি কন্ঠের অধিকারী। ঘৃণ্য হায়না দেশদ্রোহী জঙ্গি কিলার গ্রুপের যৌথ পরিকল্পনায় তাঁকে রোধ করতে ২০১৪ সালের ২৭ আগস্ট তাঁর নিজ বাসায় নিমর্মভাবে হত্যা করা হয়। বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনার সেনানীরা সহ দেশ বিদেশের লক্ষ কোটি সুন্নীজনতা গত ৬ বছর যাবত এ হত্যার তীব্র নিন্দা ও ঘৃণা জানিয়ে নিয়মতান্ত্রিক ভাবে আন্দোলন করে আসছে। কিন্তু পরিতাপের বিষয় হল দীর্ঘ ৬ বছর অতিবাহিত হবার পরেও আমরা এ নৃশংস হত্যার বিচার পাইনি। ফারুকী হত্যার বিচারের বাণী যেন নিরবে কাঁদছে। দীর্ঘ ৬ বছর অতিবাহিত হলেও সুন্নীজনতা নিরব নই, ফারুকী হত্যার বিচার দাবিতে আজও ছাত্রসেনার সেনানীরাসহ দেশ বিদেশের লক্ষ কোটি সুন্নীজনতা রাজপথে আন্দোলন করে আসছে। যতদিন ফারুকী হত্যার বিচার না হবে ততদিন ছাত্রসেনার সেনানীরাসহ দেশ বিদেশের লক্ষ কোটি সুন্নীজনতা ঘরে ফিরে যাবেনা।

ছাত্রসেনা সদস উপজেলার সভাপতি মুহাম্মদ খলিলুর রহমানের সভাপতিত্বে ও পৌর শাখার সভাপতি হাফেজ মুহাম্মদ শানু খাঁনের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি ছিল, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ মাওলানা মহিউদ্দিন মোল্লা, সহ-সাধারণ সম্পাদক এড. সৈয়দ সায়েদুর রহমান আওলাদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা মুহাম্মদ মিজানুর রহমান, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ জাফরুল কুদ্দুস গালেব, জেলা আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আত বাংলাদেশ এর দপ্তর সম্পাদক ক্বারী মাওলানা আবু রায়হান রসুলপুরী। প্রধান বক্তা ছিল যুবসেনা কেন্দ্রীয় পরিষদের সদস্য ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রসেনার সাবেক সফল সভাপতি যুবনেতা মুহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, বিশেষ বক্তা ছিল ছাত্রসেনা ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সহ-সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ নুরে আলম রেজা, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মদ উজ্জ্বল হোসাইন ও হাফেজ শফিকুল ইসলাম।

অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ছাত্রসেনা ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার সহ-সভাপতি হাফেজ মুহাম্মদ ফলিলুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম রিফাত, সাংগঠনিক সম্পাদক হাফেজ মুহাম্মদ আজিম উদ্দিন আত্বারী, অর্থ সম্পাদক হাফেজ মুহাম্মদ আকরাম খাঁন, পৌর শাখার সহ-সভাপতি হাফেজ খন্দকার সফিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক হাফেজ মুহাম্মদ শরিফ উদ্দিন, সাংগঠনিক সম্পাদক জোবায়ের আহমেদ, মুহাম্মদ জুয়েল আহমেদ, মুহাম্মদ হৃদয় হোসাইন সহ প্রমুখ।

  • 64
    Shares
  • 64
    Shares