230 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

ঝিনাইদহে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ৪ বিঘা জমির ধান পুড়িয়ে দিল দূর্বত্তরা

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ ঝিনাইদহ সদর উপজেলার নলডাঙ্গা ইউনিয়নে ভিটশ্বর গ্রামে সংঘালঘু সম্প্রদায়ের ৪বিঘা জামির ধান ঘাস মারা কীটনাশক স্প্রে করে পুড়িয়ে দিয়েছে দূর্বৃত্তরা। গত(২৫ মার্চ ২১) বৃহঃবার আনুমানিক ভোরে ঘটনাটি ঘটতে পারে।
স্থানীয় আবাদকৃত জমির মালিক ভিটশ্বর গ্রামের হৃষিকেষ মন্ডলের ছেলে নৃপেল মন্ডল অভিযোগে বলেন,জমি সংক্রান্ত বীরধের কারনে এমনটি হতে পারে।

অভিযোগে বলা হয়েছে,গত ২৫/৩/২১ থেকে ২৭/৩/২১ তারিখ ভোর রাত্রে অজ্ঞাতনামা দুষ্কৃতিকারীরা আমার বন্ধকিকৃত ১৫১ শতক ইরি ধানের জমিতে বিষাক্ত কীটনাশক স্প্রে করে। যাহাতে আমার ধান মরিয়া পঁচিয়া আনুমানিক ১লক্ষ ৫০ হাজার টাকার ক্ষতি সাধন হয়েছে।

ইতিপূর্বে ২০১৫ সালে জমি বেচাকেনা হলেও ২০১৮ সালে হৃষিকেশ ও অমরেশ একই গ্রামের মৃত মহির উদ্দীনের ছেলে ফারুক হোসেন(মতির ছোট ভাই) ১৪৩ নং ভিটশ্বর মৌজার ২৭২৮ দাগের ১একর ৮৮ শতক জমির মধ্যে পশ্চিম পাশ্ব হইতে ৪৬ শতক জমি ক্রয় করে কিন্তু জমি রেষ্ট্রির সময় পশ্চিম পাশ্বের পরিবর্তে পূর্ব পাশ্ব হইতে রাস্তা সংলগ্ন বসত ভিটাসহ ৪৬শতক জমি রেষ্ট্রিঃ করিয়া নেই।

স্থানীয় বাসিন্দা বিল্লাল হোসেন ওরফে ধলা বিল্লাল জানান,আমি ঈশার নামাজ পড়ে মসজিদে যাওয়ার সময় ভিজা কাপড়ে স্প্রে মেশিন কাঁধে নিয়ে ভিটশ্বর গ্রামের মৃত মহির উদ্দীনের ছেলে মতি(৫৮) কে মাঠ থেকে বাড়িতে আসতে দেখেছি।

এ বিষয়কে কেন্দ্র ভিটশ্বর গ্রামে ইত্তেজনা বিরাজ করছে। সম্প্রদায়িক দাঙ্গা বাধাতে একটি মহ তৎপর। অকথ্য ভাষার সংখ্যালঘুদের উপর গালিগালাজসহ দেশ ত্যাগের হুমকি দিচ্ছে বলে জানান অভিযোগকারীরা। স্থানীয় নলডাঙ্গা ক্যাম্পের আইসি মনিরুল ইসলাম,অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি।

দোষীদের অবশ্যই আইনের আওতায় আনা হবে। স্থানীয নলডাঙ্গা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী দেলোয়ার হোসেন ঝন্টু জানান,এটি একটি ঘৃণিত কাজ। যারা এটা করেছে তাদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টিন্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচিছ। এ বিষয়ে কেন্দ্র করে ঝিনাইদ সদর থানাতে একটি অভিে যাগ দায়ের করা হয়েছে।