426 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

ট্রলার সহ ১৬ ভারতীয় জেলেকে আটক করেছে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড

  • 31
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    31
    Shares

 মোংলা প্রতিনিধিঃ  বঙ্গোপসাগরে দেশীয় জলসীমায় মাছ শিকারের অপরাধে ১৬ ভারতীয় জেলেকে আটক করেছে বাংলাদেশ কোস্টগার্ডের জাহাজ ‘বিসিজিএস ‘অপরাজেয় বাংলা।’এ সময় জব্দ করা হয়েছে এফবি মা- মঙ্গল চন্ডী-৭ নামের  একটি ভারতীয় ট্রলার ও  ট্রলারে থাকা  বিভিন্ন প্রজাতির মাছ ও জাল-দড়ি।মোংলা কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের গোয়েন্দা দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার ভোর রাতে মোংলা সমুদ্র বন্দরের অদূরে বঙ্গোপসাগরের ফেয়ারওয়ে বয়া এলাকা থেকে ট্রলারসহ ওই ভারতীয় জেলেদের আটক করা হয়। বাংলাদেশ কোস্টগার্ডের জাহাজ ‘বিসিজিএস অপরাজেয় বাংলা’ বঙ্গোপসাগরের ফেয়ারওয়ে বয়া এলাকায় টহলদান কালে ভারত – বাংলাদেশ  জলসীমার ১০. ২ নটিক্যাল মাইল ভেতরে অবৈধ অনুপ্রবেশ করে শিকারের সময় ট্রলারসহ ভারতীয় জেলেদের আটক করে।আটক এ সকল জেলেদের বাড়ি ভারতের দক্ষিণ-চব্বিশ পরগনা জেলার বিভিন্ন এলাকায় বলে জানা গেছে।আটককৃত জেলেদের বুধবার সন্ধ্যায় ট্রলার ও মাছসহ মোংলা থানায় স্থানান্তর করেছে কোস্টগার্ড।আটকদের বিরুদ্ধে সামুদ্রিক মৎস্য অধ্যাদেশ ১৯৮৩ এর ২২ ধারায় মামলা দায়েরের পর জেলহাজতে পাঠানোর কথা জানিয়েছেন মোংলা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. ইকবাল বাহার চৌধুরী।মোংলা কোস্টগার্ড পশ্চিম জোনের মিডিয়া কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আমিরুল হক জানান, বঙ্গোপসাগরে ভারতীয় জেলেদের অবৈধ অনুপ্রবেশ ঠেকাতে কোস্টগার্ডের পক্ষ থেকে নিয়মিত টহল অব্যাহত রয়েছে। তিনি আরো জানান,সুন্দরবনে জলদস্যু বনদস্যুদের অপতৎপরতার বিরুদ্ধে জিরো ট্রলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে বাংলাদেশ কোস্টগার্ড। এছাড়াও কোস্টগার্ডের এখতিয়ারভূক্ত এলাকায় সমূহে মাদক ব্যবসায়ীদের নির্মুল করা সহ ও বন্যপ্রাণী পাচারকারী এবং নিধনকারীদের বিরুদ্ধে কোস্টগার্ড পক্ষ থেকে নিয়মিত অভিযান অভিযান অব্যাহত থাকবে। এর আগে গত ১ ডিসেম্বর ভোর রাতে একই এলাকা থেকে ১৭ ভারতীয় জেলেকে আটক করে মোংলা থানায় হস্তান্তর করেছে কোস্টগার্ড।

  • 31
    Shares