197 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

তিতাসে হিটলু অপহরণকারীদের ১ জনকে আটক করেছে তিতাস থানা পুলিশ

  • 7
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    7
    Shares

হালিম সৈকত:  কুমিল্লার তিতাসে হিটলু অপহরণের মূলহোতা মোঃ মামুন ওরফে ডাকাত মামুনকে ( ৩০)  আটক করেছে তিতাস থানা পুলিশ।  তিতাস থানার চৌকস অফিসার এসআই মোঃ বিল্লাল হোসেন ১৪ অক্টোবর বিকাল ৪টায় তিতাস উপজেলার  নারান্দিয়া  ইউনিয়নের দক্ষিণ নারান্দিয়ার চকের বাড়ি থেকে তাকে আটক করে। বিষয়টি  নিশ্চিত করেছেন এসআই মোঃ বিল্লাল  হোসেন। তার সাথে আরও ৪ জন জড়িত বলে জানা গেছে। কেন অপহরণ করা হয়েছে?  সেই প্রশ্নের উত্তরে জানিয়েছে,  হিটলুর কাছে মামুনের বোন জামাই ২ লক্ষ ৮০ হাজার টাকা পায় কিন্তু হিটলু দিচ্ছে না। কলাকান্দি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাবিবুল্লাহ বাহার কয়েক বার বিচার শালিস করে দেওয়ার পরও সে টাকা পরিশোধ করে নি। তাই তাকে অপহরণ করা হয়েছে বলে জানায় মামুন।

উল্লেখ্য কুমিল্লার তিতাসে হিটলু নামে এক ব্যক্তিকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে তুলে নেয় সন্ত্রাসীরা।
গত ৬ অক্টোবর বিকাল ৪ টার দিকে উপজেলার কলাকান্দি ইউনিয়নের আফজল কান্দির একটি দোকানের সামনে থেকে একদল চিহ্নিত সন্ত্রাসী ওই ব্যক্তিকে তুলে নেয় বলে এলাকাবাসী জানায়।
হিটলু আফজল কান্দি গ্রামের মৃত খোরশিদ মিয়ার ছেলে।
সন্ত্রাসীরা হিটলুকে তুলে নিয়ে ৩ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে নদীর পাড়ে দিয়ে আসতে বলেছে বলে এমন অভিযোগও করেন পরিবারের লোকজন।
এদিকে ঘটনা জানার সাথে সাথেই তিতাস থানা পুলিশ রহস্য উদঘাটনে মরিয়া হয়ে উঠে এবং রাত ৪ টার দিকে তিতাস থানার দায়িত্ববান সাব-ইন্সপেক্টর মো. বিল্লাল হোসেন ভিকটিমকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।
পুলিশ জানায়, ভিকটিমের স্ত্রী রিনা আক্তার কাজল বাদী হয়ে অজ্ঞাত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে  আসামী করে মামলা করে।
মামলা রুজুর পরেই প্রকৃত দোষিদের গ্রেফতারে অভিযান চলায় তিতাস থানা পুলিশ।  সেই প্রেক্ষিতেই আজ মামুনকে আটক করা হলো।
এলাকার একাধিক সূত্র জানায়, দীর্ঘদিন যাবৎ গোপনে এলাকায় একটা বাহিনী নিরব চাঁদাবাজি ও মাদক বিকিকিনি করে আসছে। নোয়াখালী বেগমগঞ্জের দেলোয়ার বাহিনীর মত এখানেও তাদের ভয়ে কেউ মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছে না। বিষয়টি গভীরভাবে তদন্ত করে এখনই আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জোর দাবি জানান তারা।
  • 7
    Shares
  • 7
    Shares