330 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে সাহেদ কারাগারে

  • 63
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    63
    Shares

পদ্মা ব্যাংকের অর্থ আত্মসাতের মামলায় রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাহেদকে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) জিজ্ঞাসাবাদ শেষ হয়েছে। দুদকের প্রধান কার্যালয়ে সংস্থাটির সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন। রবিবার  জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য বলেন, রিমান্ড শেষে সাহেদকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদে তার কাছে প্রাপ্ত তথ্য মামলার তদন্তে কাজে লাগবে।

এর আগে ২৭ জুলাই পদ্মা ব্যাংকের দুই কোটি ৭১ লাখ টাকা আত্মাসাতের অভিযোগে সাহেদসহ চারজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন দুদকের উপসহকারী পরিচালক মোহাম্মদ শাহজাহান মিরাজ। মামলায় পদ্মা ব্যাংকের (সাবেক দি ফারমার্স ব্যাংক) পরিচালনা পর্ষদের অডিট কমিটির সাবেক চেয়ারম্যান মো. মাহবুবুল হক চিশতি ওরফে বাবুল চিশতি, বকশীগঞ্জ জুট স্পিনার্স লিমিটিডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও বাবুল চিশতির ছেলে রাশেদুল হক চিশতি, রিজেন্ট হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালকমো. ইব্রাহিম খলিলকেও আসামি করা হয়েছে।

এই মামলায় সাহেদকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করতে আদালতে আবেদন করে দুদক। এর পরিপ্রেক্ষিতে ১০ আগস্ট ঢাকার মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ কে এম ইমরুল কায়েশ আসামি সাহেদের সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। সোমবার রিমান্ডে সাহেদকে প্রথম দিনের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

করোনার পরীক্ষা না করে ভুয়া রিপোর্ট প্রদানসহ চিকিৎসার নামে প্রতারণা ও জালিয়তির অভিযোগে ৬ ও ৭ জুলাই অভিযানে ঢাকায় রিজেন্টের দুটি হাসপাতাল বন্ধ করে র‌্যাব। পরে ওই হাসপাতালের অনুমোদন বাতিল করে স্বাস্থ্য বিভাগ। এ ঘটনায় করা মামলায় ১৫ জুলাই সাহেদকে গ্রেফতার করে র‌্যাব।

  • 43
    Shares
  • 63
    Shares