612 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

দৃশ্যমান হল পদ্মা সেতুর ৫ হাজার ৫৫০ মিটার অংশ।

অনলাইন ডেস্ক:

২০১৪ সালের ডিসেম্বরে পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ শুরু হয়। ২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর ৩৭ ও ৩৮ নম্বর খুঁটিতে প্রথম স্প্যান বসানোর মধ্য দিয়ে দৃশ্যমান হয় পদ্মা সেতু। এরপর একে একে বসানো হল ৩৭টি স্প্যান। এতে দৃশ্যমান হয়েছে সেতুর পাঁচ হাজার ৫৫০ মিটার অংশ।

৩৬তম স্প্যান বসানোর ছয় দিনের মাথায় পদ্মা সেতুতে বসানো হয়েছে ৩৭তম স্প্যান ‘২-সি’। সেতুর মুন্সিগঞ্জের মাওয়া প্রান্তে বৃহস্পতিবার বিকাল পৌনে ৩টায় ৯ ও ১০নং পিয়ারের ওপর বসানো হয় এই স্প্যানটি।

এতে দৃশ্যমান হল সেতুর ৫ হাজার ৫৫০ মিটার অংশ। অর্থাৎ সাড়ে ৫ কিলোমিটারের কিছুটা বেশি অংশ।

এর পর সেতুতে আর বাকি রইলো মাত্র ৪টি স্প্যান বসানোর কাজ। পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী (মূল সেতু) দেওয়ান মো. আবদুল কাদের এসব তথ্য নিশ্চিত করে জানান।

৪২টি পিলারে ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্যের ৪১টি স্প্যান বসিয়ে ছয় দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা সেতু নির্মাণ করা হবে। এর মধ্যে সব কটি পিয়ার এরই মধ্যে দৃশ্যমান হয়েছে।

মূল সেতু নির্মাণের জন্য কাজ করছে চীনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চায়না মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি (এমবিইসি) ও নদী শাসনের কাজ করছে দেশটির আরেকটি প্রতিষ্ঠান সিনো হাইড্রো কর্পোরেশন। দুটি সংযোগ সড়ক ও অবকাঠামো নির্মাণ করেছে বাংলাদেশের আবদুল মোমেন লিমিটেড।

 

পথিকনিউজ/অনামিকা

 

[Sassy_Social_Share total_shares="ON"]