1185 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

নেশার টাকা না পেয়ে ২২ দিনের সন্তানকে কুপিয়ে হত্যা বাবার।

ছবিঃসংগৃহীত

অনলাইন ডেস্কঃ দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলায় নেশার টাকা না পেয়ে ২২ দিনের সন্তানকে বটি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে মাদকাসক্ত এক বাবা।বৃহস্পতিবার সকাল ৭টায় দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলার আলাদীপুর ইউনিয়নের বারাই গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় মাদকাসক্ত ঘাতক বাবা সুবাস মহন্তকে (২৮) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।প্রতিবেশীরা জানান, সুবাস মহন্ত দীর্ঘদিন ধরে মাদকাসক্ত ছিলেন। কোনো কাজকর্ম করত না সে। প্রায় দুবছর আগে অনামিকা মহন্তের সঙ্গে বিয়ে হয় তার। বিয়ের পর থেকেই বিভিন্ন সময় তার স্ত্রীকে টাকার জন্য চাপপ্রয়োগ করত।টাকা না পেয়ে প্রায় স্ত্রীকে মারধর করত। বুধবার সন্ধ্যায় সুবাস মহন্ত স্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়াঝাটি করে। এর পর মারধরও করে।এ বিষয়টি এলাকাবাসী অনামিকার বাবার বাড়িতে জানায়। বৃহস্পতিবার এ বিষয়ে দুই পরিবারের মাঝে সমঝোতা বৈঠক হওয়ার কথা ছিল।

কিন্তু সকাল ৭টায় সুভাস মহন্ত বন্ধ ঘর থেকে চিৎকার করে বলে, ‘আমি আমার বাচ্চাকে কেটে ফেলছি’। চিৎকার শুনে এলাকাবাসী ছুটে এসে ঘরের চালার টিন খুলে ভেতরে গিয়ে ওই নবজাতকের লাশ উদ্ধার করে আহত অবস্থায় স্ত্রী অনামিকাকে হাসপাতালে ভর্তি করে স্থানীয়রা এবং স্বামী সুভাষকে আটক করে থানায় খবর দেন। খবর পেয়ে ফুলবাড়ী থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নবজাতকের লাশ উদ্ধার করে পিতা সুভাষ মহন্তকে আটক করে নিয়ে আসে।নবজাতকের মা অনামিকা মহন্ত বলেন, নেশার টাকার জন্য প্রায় আমাকে মারধর করত সুভাস। বুধবার সন্ধ্যায় ৩ ঘণ্টা ঝগড়া ও মারপিট করলে আমি শাশুড়ির ঘরে আশ্রয় নিই। কিন্তু সেখানেও সুভাষ আমাকে ও বাচ্চাকে টানাহেঁচড়া করলেও আমার শাশুড়ি কোনো প্রতিবাদ করেননি।  বৃহস্পতিবার সকাল ৭টায় আমাকে ঘর থেকে বের করে আমার বাচ্চাকে ছিনিয়ে নিয়ে ঘর বন্ধ করে সন্তানটিকে বটি দিয়ে কেটে হত্যা করে।

ফুলবাড়ী থানার ওসি মো. ফখরুল ইসলাম বলেন, শিশুটির মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে এবং ঘাতক সুভাস চন্দ্র মহন্তকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ব্যাপারে ফুলবাড়ী থানায় একটি হত্যা এবং নারী ও শিশু দমন আইনে মামলা করা হয়েছে। আসামি সুভাস চন্দ্র মহন্তকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

পথিকনিউজ/অনামিকা

[Sassy_Social_Share total_shares="ON"]