722 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

নোয়াখালীতে ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় স্কুল ছাত্রীর মাকে কুপিয়ে জখম

নোয়াখালী জেলা প্রতিনিধিঃ নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীর রথী গ্রামে দশম শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীকে ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় স্কুল ছাত্রীর মা তাসলিমাকে কুপিয়ে আহত কারার ঘটনার গত ৪ দিন অতিবাহিত হলেও এখনো কোনো আসামিরা গ্রেফতার হয়নি। গুরুত্বর অবস্থায় তাসলিমা নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তার মাথায় আঠারটি সেলাই দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। গত বুধবার (২ ডিসেম্বর) বিকালে হাসপাতালে আহত তাসলিমা ও তার স্কুল ছাত্রী জানান, বখাটে মোশারফ প্রায়ই তাকে ইভটিজিং করে আসছে। বিষয়টি ছাত্রী তার পরিবারকে জানালে সে আরও ক্ষিপ্ত যায়। গত সোমবার ভুক্তভোগীর মা ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করলে তাকে মোশারফ, রাহাত ও হৃদয় ক্ষিপ্ত হয়ে দা দিয়ে মাথায় কুপিয়ে গুরুতর আহত করে এবং তার গায়ে গরম পানি ঢেলে দেয়। পরে এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। তার মাথায় আঠারটি সেলাই দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় সোনাইমুড়ী থানায় তসলিমা বেগম বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। কিন্তুু ঘটনার ৪ দিন অতিবাহিত হলেও বখাটেদের পুলিশ এখনো গ্রেপ্তার করতে পারেনি। সোনাইমুড়ী থানার ওসি গিয়াস উদ্দিন জানান, এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

[Sassy_Social_Share total_shares="ON"]