266 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট, যুবসেনা ও ছাত্রসেনা ভূজপুর উপজেলার বর্ধিত সভা সম্পন্ন।

  • 264
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    264
    Shares

মুহাম্মদ রফিকুল ইসলামঃ-

সুইডেনে কুরআন অবমাননাকারীদের শাস্তি ও বৈশ্বিক মহামারী করোনা ভাইরাস থেকে স্বাধীন বাংলা সহ বিশ্ববাসীকে মুক্তিদানের লক্ষ্যে দেশের একমাত্র সুফীবাদী সংগঠন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট মাসব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচি ঘোষণা করেছে। এ কর্মসূচি গুলো ০২ সেপ্টেম্বর থেকে ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চলবে। কেন্দ্রীয় পরিষদের ঘোষিত কর্মসূচী বাস্তবায়নের চট্টগ্রাম উত্তর জেলার আওতাধীন বাংলাদেশ ইসলাম ফ্রন্ট, যুবসেনা ও ছাত্রসেনা ভূজপুর উপজেলার যৌথ উদ্যোগে বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভাটি হারুয়ালছড়ি সুজানগর মাদ্রাসা হল রুমে কাজী মাওলানা মুহাম্মদ ওসমান গনি হোসাইনির সভাপতিত্বে গতকাল ০৩ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত হয়। পবিত্র কুরআন তিলাওয়াত, নাতে রাসুল (দঃ), জাতীয় সংগীত ও দলীয় সংগীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে সভাটি শুরু করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব জননেতা আলহাজ্ব অধ্যক্ষ স.উ.ম. আবদুস সামাদ। উদ্বোধক ছিলেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট চট্টগ্রাম উত্তর জেলার সভাপতি জননেতা আল্লামা মুহাম্মদ ওবাইদুল মুস্তাফা কদমরসুলী। প্রধান বক্তা ছিলেন কেন্দ্রীয় পরিষদের শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ বিষয়ক সচিব অধ্যক্ষ আল্লামা মুহাম্মদ তৈয়ব আলী। বিশেষ বক্তা ছিলেন, আল্লামা আবদুর রহিম মুনিরী, আল্লামা ইয়াসিন হোসাইন হায়দারী, মঈনুল আলম চৌধুরী, মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম, মুহাম্মদ সাইফুল ইসলাম নেজামী, মামুনুর রশীদ জাবেদ, মুহাম্মদ নাসির উদ্দীন রুবেল, মুহাম্মদ আলা উদ্দিন, আজিজুল করিম, মামুন উদ্দিন, শাহজান মিয়া, আবুল কাশেম মুহাম্মদ জহুরুল হক, মাওলানা মুহাম্মদ আবদুস সবুর নঈমী।

বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট ভূজপুর উপজেলার সাধারণ সম্পাদক হাফেজ মাওলানা সৈয়দ মুহাম্মদ আবদুল লতিফ চাট্রগ্রামীর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, হাফেজ জসিম উদ্দিন রেজভী, মাওলানা নুরুল আলম আজাদ তাহেরী, নঈম উদ্দিন, শাহ আলম, সাহেদুল আলম সহ ইউনিয়ন শাখার প্রতিনিধিগন। সভায় বক্তারা সুইডেনের নাস্তিক, জঙ্গি, সন্ত্রাস কর্তৃক সর্বশ্রেষ্ঠ গ্রন্থ পবিত্র কুরআনের অবমাননার তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন। তাঁরা কুরআন অবমাননাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। বক্তারা বলেন, মুসলিমদের হৃদয়ে আঘাত ও বিশ্ব শান্তি বিনষ্টকারী কোন ধর্মের হতে পারেনা। কুরআন অবমাননাকারীর স্বীকৃতি প্রাপ্ত সন্ত্রাস ও জঙ্গি। এরা শুধু ইসলাম নয়, যে কোন ধর্মের জন্য বিষফোড়া। তাদের চিন্থিত করে বিচার না করলে বিশ্ব মুসলিম চুপ করে ঘরে বসে থাকবেনা। মুসলিম সম্প্রদায় জীবনের বিনিময়ে হলেও কুরআনের সম্মান অটুট রাখবে। বক্তারা আহলে সুন্নাতের দাওয়াতি কাজে বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট, যুবসেনা ও ছাত্রসেনার কর্মীদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা গুলো উপস্থাপন করে, ইসলাম দিন ও মাজহাব মিল্লাতের জন্য জীবন উৎসর্গ করার শপথ গ্রহণ করেন। সভা শেষে অদৃশ্য করোনা ভাইরাস থেকে দেশ ও জাতিসহ বিশ্ববাসীকে মুক্তি দানে দয়াময় প্রভুর দরবারে উপস্থিত নেতৃবৃন্দ কায়মনোবাক্যে প্রার্থনা করেন।

  • 264
    Shares
  • 264
    Shares