938 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

বিরোধীদলীয় রাজনীতি নিয়ে সাধারণ মানুষ হতাশ- মোঃআজিজুল হুদা চৌধুরী সুমন। 

  • 200
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    200
    Shares
জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটি সদস্য ও জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টি ঢাকা মহানগর দক্ষিণ এর সভাপতি মোঃআজিজুল হুদা চৌধুরী সুমন বলেন –    যখন দলের আদর্শের পরাজয় দেখি তখন হতাশা গ্রাস করে।রাজনীতির কারণে কতটুকু আপস করা যায়? মৌলিক আদর্শের অপমৃত্যু ঘটিয়ে শেষ পর্যন্ত কি লক্ষ্য পূরণ করা সম্ভব? আমাদের দলের নেতা-নেত্রীরা খুব আবেগ প্রবণ, আবেগের তাড়নায় নিজেদের অবস্থান বিবেচনা করেন না।
যদি সাধারণ মানুষকে প্রশ্ন করা হয় সংসদে ও সংসদের বাহিরে বিরোধী দলের ভূমিকা কী তবে অধিকাংশই মানুষ বলবে-বিরোধী দলের কোন ভূমিকা নেই।বিরোধী দলের রাজনৈতিক অঙ্গন শীতল এবং নিস্তেজ।
ব্যক্তি ও গোষ্ঠী স্বার্থ রক্ষা করতে গিয়ে দলকে এখন খেসারত দিতে হচ্ছে!তবে এর অর্থ এই নয়,রাজনীতি উত্তপ্ত বা সংঘাতপূর্ণ থাকবে।সুস্থ্য রাজনীতির মূল লক্ষ্যই হচ্ছে,সাধারণ মানুষের স্বার্থ ও কল্যাণ নিয়ে কাজ করা।বিরোধী দলের রাজনীতির উদ্দেশ্য,সাধারণ মানুষের হয়ে কথা বলা এবং সরকারের ভুল-ত্রুটি এবং দেশ ও জনস্বার্থবিরোধী কোনো সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করা।
বর্তমানে জাতীয় পার্টির রাজনীতির দিকে যদি তাকানো যায়,তবে দেখা যাবে জাতীয় পার্টির  রাজনীতি এখন আত্মকেন্দ্রিক।নেতারা নিজেদের মধ্যে ক্ষমতার দ্বন্দ্বের রাজনীতিতে লিপ্ত।নেতারা না পারছে সাধারণ মানুষের হয়ে রাজনীতি করতে,না পারছে তাদের লক্ষ্য হাসিল করতে।
বিপুল জনসমর্থন থাকা সত্ত্বেও জাতীয় পার্টির অবস্থান ঠিক করতে পারছে না।রাজনীতিতে শেষ কথা বলে কিছু নেই-আমরা এখনো বিশ্বাস করি জাতীয় পার্টির  রাজনীতির আদর্শিক জায়গায় ফিরে আসলে এখনো  রূপান্তর সম্ভব।
আমরা আমাদের নেতা-নেত্রীদের কারণে বিব্রত হতে চাই না।হতে চাই গর্বিত।রাজনীতিতে দরকষাকষি থাকবে। তবে তা হোক যৌক্তিক অবস্থানে থেকে।নেতা-নেত্রীদের বক্তব্য ভাবনা হোক অনেক বেশি মেধাবী ও ওজস্বী।
প্রেস বিজ্ঞপ্তি
  • 200
    Shares