424 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সর্বাধিক পরিচিত টাউন খাল, তার পূর্বের অবস্থা ফিরে পাবে কি?

  • 114
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    114
    Shares

মুহাম্মদ রফিকুল ইসলামঃ-

চলছে বর্ষাকাল, আষাঢ় মাস শেষ। দেশের অন্যান্য নদ নদীর মত তিতাসের বুকেও পানি বেড়েছে। বিভিন্ন উপজেলার মানুষ নৌকা যুগে তিতাসের বুক চিড়ে খুব সহজে প্রতিনিয়ত ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আসছে। তিতাসে পানি বৃদ্ধির সাথেসাথে তিতাসের সাথে সংযুক্ত খাল গুলোতেও পানির প্রচন্ড বেগ সৃষ্টি হয়েছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের (টিএ রোড়) কে ভেদ করে তিতাসের সাথে মিশ্রিত টাউন খালটির পরিস্থিতি দেখলে মনে হয় যেন এই আষাঢ় মাসের ফাকেও চৈত্র মাস চলছে। বর্ষাকালে যে খাল দিয়ে হাজারো নৌকা আসা যাওয়া করত, আজ সে খালে নৌকাতো দূরের কথা নৌকার ছায়াও দেখা যায় না। আনন্দ বাজার থেকে শুরু করে এ খালটি যতটুকু দৈর্ঘ্য সবটুকুতেই শুধু কচুরিপানা আর লতাপাতা। খালটিতে পানি থাকলেও কচুরিপানার কারণে বুঝাই যাচ্ছে না এটি একটি খাল। এ খালে নৌকা আসা যাওয়া করেছে। যদিও পানিতে স্রোত আছে। স্রোত থাকার পরেও কচুরিপানা চুল পরিমাণ নড়ছে না। বর্তমানে খালটিতে যে পরিমান স্রোত আছে, খালের দুপাশে লেগে থাকা কচুরিপানা গুলো আলাদা করে দিলে খালটি খুব সহজে তাঁর পূর্বের অবস্থান ফিরে পাবে বলে খাল পাড় দিয়ে যাতায়াত কারীদের বলতে শুনা যায়। পথিক নিউজের প্রতিনিধি মুহাম্মদ রফিকুল ইসলাম আজ ১৩ জুলাই সোমবার বিকেলে খাল পাড় দিয়ে পারাপার হওয়ার সময় তিনি খালের উভয় পাড় দিয়ে যাতায়াত কারীদের গুঞ্জন করে এ কথা বলতে শুনেন। তাদের দাবি পৌর কর্তৃপক্ষ যদি অতীতের মত এ বৎসরও খালটি পরিষ্কারের উদ্যোগ নিত তাহলে খালটি তার পূর্বের অবস্থান ফিরে পেত। আর শহর ফিতে পেত আগের সৌন্দর্য।

  • 114
    Shares
  • 114
    Shares