894 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দোকান লুটপাট ও চুরির ঘটনার অভিযোগ

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দোকান লুটপাট ও চুরির ঘটনার অভিযোগের উপর ভিত্তি করে কুমিল্লা থেকে আসামি আটক করেছে পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি পুলিশ)।

গত শুক্রবার বিশেষ তথ্য ও মোবাইল ট্রাকিংয়ের মাধ্যমে আসামি সনাক্ত করা হয়। আটককৃত আসামি হলেন মোঃ রাসেল মিয়া পিতাঃ মোঃ সানু মিয়া সাং রাইতলা, কসবা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া। আটকের পর আসামিকে থানায় সোপর্দ করা হয়।

গত ১৬/১০/২০১৮ ইং তারিখ রোজ মঙ্গলবার দিবাগত রাত আনুমানিক ৯.০০ টায় চারগাছ বাজারের মেসার্স অনিক টেলিকম থেকে নগদ অর্থসহ​ ১৯ লাখ ৭০ হাজার টাকার মালামাল চুরির ঘটনা ঘটে।ঘটনার পর দোকানের মালিক মোঃ এমরান হোসেন স্বজল কসবা থানায় ১৭/১০/২০১৮ ইং তারেখে অভিযোগ করেন।

অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, ঘটনার পরদিন তিনি দোকানের স্যাটার খুলে দেখেন দোকানে পিছনে উত্তর পাশে বেল্টিলেটর ভেঙ্গে ও কেটে অজাত নামা চোরেরা দোকানের ভিতর প্রবেশ করে স্টীলের ক্যাশ ভেঙ্গে ক্যাশের ড্রয়ার হতে ১৪ লাখ টাকাসহ এনড্রয়েড মোবাইল ৩৮টি যাহার মূল্য ৫লাখ টাকা, বিভিন্ন কোম্পানির রিচার্জ কার্ড ৭০ হাজার টাকা চেক বই প্রয়োজনীয় কাগজপত্রসহ সর্বমোট ১৯ লাখ ৭০ হাজার টাকার ও মালামাল চুরি করে নিয়ে যায়।

চুরি করে যাবার সময় মোবাইলের খালি বক্স ফেলে যায় বক্সর উপর থাকা মোবাইল IMEI নাম্বারসহ থানায় অভিযোগ করা হয়। চোর ধরা পরার খবর শুনে অনিক টেলিকমসহ বাজারের অন্যান্য ব্যবসায়ীরা পুলিশের উপর আস্হা ও সন্তোষ্টস্বরুপের বাজারের নিরাপত্তার ব্যাপারে আশস্থ হন। আটককৃত আসামির কাছ থেকে টাকা ও মালামাল উদ্বার এবং উপযুক্ত শাস্তির জোর দাবি জানান।