783 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শিয়ালের কামড়ে আহত অর্ধশত।।

  • 35
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    35
    Shares

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ উপজেলায় শিয়ালের কামড়ে অর্ধশত মানুষ আহত হয়েছে। এদের মধ্যে নারী ও শিশুই বেশি রয়েছে। আজ শনিবার(২রা জানুয়ারি) সন্ধ্যা ৭টার দিকে দুর্গাপুর ইউনিয়নের তাঁজপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের জেলা শহরের ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল(সদর) হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। স্থানীয় আবু সাঈদ জানান, সন্ধ্যার দিকে দুইটি শিয়াল গ্রামে প্রবেশ করে হঠাৎ নারী-পুরুষ শিশুসহ প্রায় অর্ধশতাধিক মানুষকে কামড়িয়ে আহত করে। পরে তাদের উদ্ধার করে ৩২ জনকে হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেওয়া হয়। হাসপাতালে আহত একাধিক রোগী জানায়, বাড়িতে কাজ করা সময় দুইটি শিয়াল হঠাৎ করে কামড়িয়ে পালিয়ে গেছে। আহতরা সবাই একই গ্রামের। আহতরা হলেন- গোলাপ মিয়া(৩০), মামুন(২৪), কাদির(৩০), আশরাফুল ইসলাম(১২), নায়েব আলী(৩৫), সেফালী(১৪), ওয়াসিম(১৬), রাজু মিয়া(১৫), আকরাম(১৬), হারুন মিয়া(৫০), বাদশা মিয়া(৩০), হৃদয়(১৮), মাতব মিয়া(৪০), সুহেদা(৩৫), মাইনুদ্দিন(২৫), ফৌজিয়া আক্তার(৬), হেলাল উদ্দিন(৫৫), লাকি আক্তার(২৫), শান্তা(১৮), আশরাফুল মিয়া(১৫), কাদির মিয়া(৩০), জুতি(১২), জজ মিয়া(৬০), রাসেদা(৩০), নিলুফা বেগম(৩৫), মামুন(২০), ইয়ার হোসেন(২২), হোসেন মিয়া(২৫), সাইদুর রহমান(৫০), তানিয়া বেগম(২৭), সামসেদ(৩৫), কুদরত মিয়া(৩৪) প্রমূহ। তাঁজপুর গ্রামের প্রত্যক্ষদর্শী হারুন মিয়া বলেন, আমার ভাই আর ভাতিজি বাড়ির উঠানে দাঁড়ানো ছিল। হঠাৎ একটি শিয়াল আমার ভাই ও ভাতিজিকে কামড়িয়ে পালিয়ে যায়। গোলাপ মিয়া একটি শিয়ালকে ঝাপটিয়ে ধরলে সবাই গিয়ে শিয়ালটি মেরে ফেলি। বাকি আর একটি শিয়াল পালিয়ে যায়। হাসপাতালের ততত্ত্বাবধায়ক ডা. শওকত হোসেন জানান, হাসপাতালে ৩২ জন রোগীকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। আহতদের মধ্যে কয়েকজন টিকা নিয়ে বাড়িতে চলে যায়। বাকিদেরকে কালকে সকালে এসে জলাতঙ্ক রোগের টিকা দেয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

  • 35
    Shares
  • 35
    Shares