110 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

যেই অপরাধ করুক মামলা হবেই: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

যেই অপরাধ করুক মামলা হবেই: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

হেফাজতে ইসলামের নেতা মাওলানা মামুনুল হক ইস্যুতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, তিনি অপরাধ করলে মামলা তো হবেই, মামলা মামলার গতিতে চলবে। সেখানে কারো হাত নেই। যেই অপরাধ করুক মামলা হবে এবং অপরাধ করলে আইন অনুযায়ী আদালত তার বিচার করবেন।

মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) সচিবালয়ে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে আয়োজিত বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি।

চলমান লকডাউন প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সরকার বাধ্য হয়েই সাত দিনের জন্য লকডাউন কিংবা নিয়ন্ত্রণের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে। তিনি বলেন, ‘কোভিড-১৯-এর সেকেন্ড ওয়েভ আসাতে হাজার হাজার মানুষ সংক্রমিত হচ্ছে। অনেকে মানছেন আবার অনেকেই মানছেন না। করোনা ছড়িয়ে যাচ্ছে এবং এর ব্যাপকতা আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে।

হেফাজত নেতা মামুনুল হককে পুলিশি হেফাজতে নেয়া হয়েছে বলে গুজব ছড়িয়ে পড়েছে- এ বিষয়ে জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, পুলিশ হেফাজতে নিলে তাকে বাইরে দেখা যাচ্ছে কীভাবে? তিনি তো বাইরে দিব্যি ঘুরছেন, তার অত্মীয়-স্বজন ও বন্ধুবান্ধব সবাইকে নিয়ে।

তিনি বলেন, সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, কওমি মাদরাসাসহ যত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রয়েছে, মহামারির কারণে সবগুলোকেই সরকার বন্ধ ঘোষণা করেছে। আমি অনুরোধ করব সবাই যেন সরকারের নির্দেশনা মেনে এই কোভিড নিয়ন্ত্রণের জন্য আমাদেরকে সহযোগিতা করেন।

বৈঠক প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার জন্যই আমরা এ বৈঠক করেছি। আমরা দেখেছি বিনা অজুহাতে সহিংসতায় নিরীহ লোক প্রাণ হারিয়েছেন। যারা প্রাণ হারিয়েছেন তাদের মধ্যে যাদের পরিচয় দেখছি ব্রাহ্মণবাড়িয়াসহ অন্যান্য জায়গায়, তারা মাদরাসার ছাত্রের চেয়ে বহিরাগতই বেশি ছিল, সাধারণ মানুষ বেশি ছিল। আমরা কারও প্রাণহানী হোক সেটাও চাই না।

মন্ত্রী বলেন, আমরা আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় সিদ্ধান্ত নিয়েছি, কঠোর অবস্থানে যাব এবং প্রয়োজনে জেলা পর্যায়ে নির্দেশনা দেওয়া হচ্ছে জেলা পর্যায়ের ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ সুপারসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী বসে যেখানে যা প্রয়োজন আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় তারা সেই ব্যবস্থা করবে। আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, যেখানেই নাশকতা হবে আমরা কাউকে ছাড় দেব না। যারা নাশকতা করবেন এবং আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে যারা চিহ্নিত হবেন, দোষী সাব্যস্ত হবেন তার বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী সব ব্যবস্থা নেওয়া হবে। যাতে করে তারা এই ঘটনা সংগঠিত করার প্রয়াস না পান।

তথ্য সুত্রঃ মানবকণ্ঠ/