260 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

যুবসেনা সরাইল উপজেলার কাউন্সিলে-অধ্যক্ষ মহিউদ্দিন মোল্লা।

  • 150
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    150
    Shares

মুহাম্মদ রফিকুল ইসলামঃ-


যুবনেতৃত্বকে আলোরপথ দেখাতে যুবসেনার বিকল্প নেই।
**********************************
সমাজের কিছু দূষকৃত লোকের ছত্রছায়ায় নেশা নামক প্রাণঘাতী ছাইপাঁশ দেশের শিক্ষিত ও অর্ধশিক্ষিত যুবকসহ খেটে খাওয়া যুবকদের যেভাবে দিনদিন ধ্বংসের দিকে নিয়ে যাচ্ছে এতে করে ভবিষ্যতে দেশ পরিচালনার জন্য যুবনেতৃত্ব খোঁজে পাওয়া দূষকর হয়ে পড়তে পারে। এখনি যদি সমাজের ঐ দূষকৃত লোকের চিহ্নিত করে আইনানুগ ব্যবস্থা না নেওয়া হয় তবে দেশ যুবনেতৃত্ব শূন্য হয়ে যাবে।

বাংলাদেশ ইসলামী যুবসেনা সরাইল উপজেলার কাউন্সিল অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় জেলা ইসলামী ফ্রন্টের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব অধ্যক্ষ কাজী মহিউদ্দিন মোল্লা এ কথা বলেন। যুবসেনা সরাইল উপজেলার সভাপতি হাফেজ শাহাদাত হোসাইনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কাউন্সিলে তিনি আরো বলেন, কিছু রাজনৈতিক দল যখন তাদের হীন মনবাসনা পূর্ণ করতে যুবসমাজকে ধ্বংসের দিকে ছেড়ে দিচ্ছে বাংলাদেশ ইসলামী যুবসেনা যুবসমাজকে তখন আলোরপথ দেখাতে দেশব্যাপী রাতদিন কাজ করছে। তাই যুবসমাজকে সকল প্রকার নেশা-অপরাধ থেকে দূরে রাখতে বাংলাদেশ ইসলামী যুবসেনার বিকল্প নেই।

কাউন্সিল অধিবেশনে উদ্বোধক ছিলেন উপজেলা ইসলামী ফ্রন্টের সভাপতি মাওলানা এজেডএম সাইদুর রহমান মিল্লাত। বিশেষ অতিথি ছিল উপজেলা আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আত বাংলাদেশ এর সহ-সভাপতি পীরে তরিকত মাওলানা সামসুল হক রেজভী, যুবসেনা ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আহবায়ক মাওলানা মুহাম্মদ মিজানুর রহমান, উপজেলা ইসলামী ফ্রন্টের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আতিকুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আববাস উদ্দিন, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা নাজমুল হোসাইন, মাওলানা কাজী মনিরুজ্জামান, আশুগঞ্জ উপজেলা আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আতের অর্থ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম খোকা।

প্রধান বক্তা ছিল যুবসেনা কেন্দ্রীয় পরিষদের সদস্য ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা ছাত্রসেনার সাবেক সফল সভাপতি যুবনেতা মুহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, বিশেষ বক্তা ছিল ছাত্রসেনা ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সাবেক আহবায়ক মাওলানা সাদ্দাম হোসাইন ও জেলা ছাত্রসেনার সভাপতি মুহাম্মদ ইকবাল হোসাইন শাহ বাবুল।

কাউন্সিল অধিবেশনটি আজ ২১ নভেম্বর-২০ শনিবার সকাল ১০ ঘটিকায় সরাইল মালিগাওঁ জামে মসজিদে অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলার সদস্য মাওলানা আনোয়ার হোসেনের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, মাওলানা ইকরাম হোসাইন, হাফেজ আতিকুর রহমান, হাফেজ আমিনুল ইসলাম, মুহাম্মদ বায়েজিদ আহমেদ, মাও আবু নাঈম রেজভী, মাও. এরশাদ হোসাইন আজহারী, মাও. ইমরানমৃধা, মাও. আবু সোলাইমান, মুহাম্মদ কাউছার উদ্দিন জালালী, ইব্রাহিম আহমেদ বাবুলসহ প্রমূখ।

উক্ত কাউন্সিলে সর্বসম্মতিক্রমে পীরজাদা হাফেজ শাহাদাত হোসাইনকে সভাপতি, মাওলানা ইমরানমৃধা হোসাইনকে সাধারণ সম্পাদক ও মাও. আনোয়ার হোসেনকে সাংগঠনিক সম্পাদক নির্বাচিত করে ৩৩ সদস্যের একটি শক্তিশালী কমিটি ঘোষণা করা হয়।

  • 150
    Shares
  • 150
    Shares