260 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

রংপুরে মসজিদের জমি দখলবাজের হাত থেকে রক্ষার দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শরিফা বেগম শিউলী ,রংপুর প্রতিনিধিঃদখল বাজ মুক্ত সমাজ চাই, মসজিদের জমি নিয়ে টালবাহানা চলবেনা চলবেনা, মসজিদের জায়গায় নিজ নামে মাদ্রাসা বাতিল কর, করতে হবে, দখলবাজ আমজাদের শাস্তি চাই, কর্ণেল মিজানুরের বিচার চাই করতে হবে এসব স্লোগান এর মাধ্যমে ব্যপক আয়োজনে মসজিদের জমি দখলবাজের হাত থেকে রক্ষার দাবিতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী।

শনিবার (২৮ নভেম্বর) সকালে রংপুর মহানগরীর ২২ নং ওয়ার্ডের বাবুখাঁ দক্ষিন পাড়া এলাকাবাসী বাবুখাঁ দক্ষিন পাড়া জামে মসজিদ রক্ষার দাবিতে প্রায় হাজারের উপরে নারী-পুরুষ একত্রিত হয়ে মসজিদের সামনে মানববন্ধন করেন।

মানববন্ধন ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, স্থানীয় মুসল্লীগণ দীর্ঘদিন যাবতঃ শান্তিপূর্ণ ভাবে তফসিল ভূক্ত জায়গায় অবস্থিত বাবুখাঁ দক্ষিন পাড়া জামে মসজিদে নামাজ পড়েন। এমতাস্থায় এলাকার আমজাদ হোসেন, পিতাঃ মৃত- আব্দুল মজিদ স্থানীয় মুসল্লীদের প্রতি বিন্দুমাত্র শ্রদ্ধাবোধ না রেখে জোরপূর্বক তফসিল ভূক্ত জমি দখলের পায়তারা করছে।

গত ২৩ নভেম্বর/২০২০ ইং তারিখে সকাল ১০ টার দিকে মসজিদের সামনে কাউকে না জানিয়ে শুপাড়ীর গাছ লাগাকালিন স্থানীয় ও মসজিদ কমিটির লোকজন বাধাঁ প্রদান করেন সে সময় আমজাদ হোসেন অন্যায় কাজের বাধাঁ প্রদান কালে সকলকে উদ্যোশ্য করে হুমকি প্রদান করেন। এবং তার ছেলেকে (বর্তমান সেনাবাহিনীর কর্ণেল মিজানুর রহমান বুলেট) বলে সকলকে দেখে নেয়ার হুমকি প্রদান করেন।

এমতাবস্থায় অত্র এলাকার সকল নারী-পুরুষ তাদেরকে বোঝানোর চেষ্টা করেন এবং কোতয়ালী থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করেন অভিযোগের ভিত্তিতে থানার বসার ব্যবস্থা করা হলে পুলিশসহ এলাকাবাসীর কথা তোয়াক্কা করেন না আমজাদ হোসেন। বাধ্য হয়ে এলাকাবাসী প্রধানমন্ত্রীসহ প্রশাসনের দৃষ্টি কামনা করে মানববন্ধনের আয়োজন করেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন আমজাদ হোসেনের ছেলে একজন সেনাবাহিনীর কর্ণেল পদে কর্মরত রয়েছেন তার নাম মিজানুর রহমান (বুলেট) তার ক্ষমতার জোরে আমজাদ হোসেন এলাকায় সকল সময় ক্ষমতার অপব্যবহার করেন। এলাকাবাসীর কারো সাথে সম্পর্ক্য ভালো নাই। এক ঘরোয়া হয়ে বসবাস করেন। কারো সাথে ভালো ব্যবহার করেননা।

সকলকে প্রশাসন ও মামলার ভয় প্রদর্শন করেন। এমতাবস্থায় করোনা কালীন স্বাস্থ্যবিধি মেনে আমরা মসজিদ কমিটিসহ এলাকাবাসী এক হয়ে মানববন্ধনে অংশ নিয়েছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সেনাবাহিনীর প্রধান এবং সকল প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করে আমরা ন্যায় বিচার কামনা করছি ও এমন দৃষ্টান্ত মূলক ব্যবস্থা করা হোক যাতে ভবিষ্যতে কেউ মসজিদ, মাদ্রাসা নিয়ে রাজনীতি করতে না পারে।

উক্ত মানববন্ধনে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন, মসজিদ কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব মোকছেদ আলী, সহ সভাপতি আনছার আলী, মিজানুর রহমান, মুনছুর আলী, সাধারণ সম্পাদক মনসুর আলী, যুগ্ন সম্পাদক মুকুল মিঞা, কোষাধ্যক্ষ রমজান আলী, কমিউনিটি পুলিশিং ১০ নং বীট এর সভাপতি মিজানুর রহমান মিজানসহ মসজিদ কমিটির সকল সদস্য বৃন্দ ও এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তি বর্গ। মানববন্ধনে হাজারের উপরে নারী-পুরুষের উপস্থিতি লক্ষ করা যায়।

পথিকনিউজ/অনামিকা