660 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

রাস্তায় পড়ে থাকা পোকা ও পছন ধরা ভবঘুরে মহিলাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছেন ইয়াসমিন মিতা।

  • 238
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    238
    Shares

দেলোয়ার উদ্দিনঃ সরাইল ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিশ্বরোডে আনুমানিক ৫০ পঞ্চাশোর্ধ সারা শরিরে পোকা ও পচন ধরা মৃতপ্রায় রাস্তায় পড়ে থাকা ভবঘুরে একজন মহিলাকে পড়ে থাকতে দেখে জুনায়েদ নামে একজন যার বাড়ি সরাইলে। সে, ইয়াসমিন মিতা নামের একজন মহিলা, তার বাড়িও সরাইলে, তাকে ফোন করে অভিহিত করেন। যিনি ইতিমধ্যে রাস্তায় ভবঘুরে অবহেলিত মানুষ এবং প্রানীদের নিয়ে কাজ করে, মানবিক মানুষ হিসেবে সুখ্যাতি অর্জন করেছেন।খবরটি শুনে তিনি আর স্থির থাকতে পারলেননা। কিন্ত কিভাবে কি করবেন তিনি বুঝে উঠতে পারছিলেন না কারন তিনি যে ঢাকায় অবস্থান করছেন।

 

 

তৎক্ষনাৎ তিনি ঢাকার মিরপুরের চাইল্ড এন্ড এইজ কেয়ারের মিল্টন সমদ্দারকে ফোনে ঘটনাটি অবহিত করে পরামর্শ চান তিনি তৎক্ষনাৎ ঢাকায় নিয়ে আসার পরামর্শ দিয়েছেন এবং এও বলেছেন পুলিশী হয়রানি এড়াতে অবশ্যই যেন স্থানীয় প্রশাসন এর অনুমতি নিয়ে নেন। মিতা তারপর ভাবছিলেন যে ঘটনাটি কাকে বললে ইতিবাচক সাড়া দিবে, তৎক্ষনাৎ আগে থেকেই পরিচিত স্নেহের ছোট ভাই মানবিক মানুষ নামে পরিচিত সানাউল্লাহ গিয়াসউদ্দিন সেলুকে বিষয়টি জানান এবং তিনিও এগিয়ে আসেন।

 

 

 

কিন্ত আরেকজন মানুষকে খুবই প্রয়োজন, যিনি এম্বুল্যান্স এর সাথে অসহায় মানুষটির সাথে ঢাকায় আসবে, তখন ইয়াসমিন মিতা ফেসবুকে একটি পোস্ট দেয়। পোষ্টটি দেখার পর আরেক মানবিক মানুষ মামুন মোত্তাইদ সহ আর বেশ কয়েকজন এগিয়ে আসেন।ততক্ষণে সেলু এম্বুলেন্স সহ প্রশাসনের অনুমতি নিয়ে ঢাকায় আনার ব্যাবস্থা করে ফেলেছেন এবং জুনায়েদ ও ইয়াসমিন মিতা একটি ফান্ড করে সমস্ত খরচও যুগিয়ে ফেলেছেন।

 

 

ঢাকায় আনার পর রাত ৩.৩০ এর দিকে ইয়াসমিন মিতা নিজে উপস্থিত থেকে, মহিলাটিকে বৃদ্ধাশ্রমে হস্তান্তর করেন। দুইদিন ধরে অক্লান্ত পরিশ্রম করে তারা মৃত প্রায় পোকা ও পচন ধরা মহিলাটিকে অনেকটা সুস্থ করে তুলেছেন। বাকিটা আল্লাহর ইচ্ছে। ইয়াসমিন মিতা বলেন মানবিক সেবায় কি সুখ, তা বলে বুঝাতে পারবোনা। সারা জিবন মানবিক কাজ করে যেতে চাই।

 

 

সবার কাছে মহিলাটির জন্য দোয়া চেয়েছেন। পুরো কাজটি সঠিকভাবে নেতৃত্ব দিয়ে দায়িত্ব পালন করার জন্য সেলুকে আবারো ধন্যবাদ দিয়েছেন।পাশাপাশি ডাঃ নোমান, সরাইল থানা,জুম্মন আহমেদ,ফারাবী খন্দকার, জুনায়েদ শুভ, বখতিয়ার আদিল, জাহিদ হাসান সহ আরো অনেকেই যারা না থাকলে এই ভালো কাজটি করা সম্ভব হতোনা।

 

  • 238
    Shares