84 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

লকডাউনেও থেমে নেই ভোক্তা-অধিকার অধিদপ্তর, সর্বত্র চলছে অভিযান ও সচেতনতা মূলক কার্যক্রম 

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
মোঃ মোয়াজ্জেম হোসেন চৌধুরী, মৌলভীবাজারঃ  নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য দ্রব্যের মূল্য নিয়ন্ত্রণে এবং করোনাকালীন সময়ে বাজারে আগত ক্রেতা বিক্রেতাদের মাস্ক পড়াসহ স্বাস্থ্যবিধি মানাতে শহর গ্রাম সর্বত্র কাজ করে যাচ্ছে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সার্বিক তত্ত্বাবধানে থাকা জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর মৌলভীবাজার জেলা কার্যালয়ের কার্যক্রম।
জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মৌলভীবাজার জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো: আল-আমিন এর নেতৃত্বে আর্মস ব্যাটেলিয়ান পুলিশ ফোর্স এর সহযোগিতায় অভিযান ও সচেতনতা মূলক কার্যক্রম পরিচালিত হয়েছে।
আজ বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) মৌলভীবাজার সদর উপজেলায় অবস্থিত পাইকারি সবজির আড়তে পণ্য দ্রব্যের দাম নিয়ন্ত্রণের লক্ষে তদারকি করেন। উক্ত পাইকারি বাজারে সহকারী পরিচালক মূল্য তালিকা প্রদর্শন করা, খুচরা ব্যবসায়ীদের ক্রয় ভাউচার প্রদান করাসহ ব্যবসায়ীদের স্বাস্থ্যবিধি মানার অনুরোধ জানান।
এছাড়াও আজ মৌলভীবাজার রাজনগর উপজেলার মুন্সিবাজার, সিলেট রোড, বাগান রোডসহ গ্রামের বিভিন্ন জায়গায় নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য সামগ্রীর প্রতিষ্ঠান, মাছ মাংসের দোকান, ফার্মেসী এবং অন্যান্য দোকানে মনিটরিং ও সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।
উক্ত তদারকি অভিযানে মূল্য তালিকা না রাখা, অতিরিক্ত দামে পণ্য বিক্রয় করা, মেয়াদ উত্তীর্ণ খাদ্য বিক্রয় করা, অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য পণ্য রাখাসহ বিভিন্ন অনিয়মের দায়ে মুন্সিবাজারে অবস্থিত মেসার্স রুমু ভেরাইটিজ ষ্টোরকে ৩ হাজার টাকা, সিলেট রোডে অবস্থিত ফাহিম ষ্টোরকে  ৩ হাজার টাকা জরিমানা আরোপ ও তা আদায় করা হয়।
আজকের অভিযানে মোট ২ টি প্রতিষ্ঠানকে সর্বমোট ৬ হাজার টাকা জরিমানা ও তা আদায় করা হয়। এছাড়াও পথচারী এবং ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের মালিকদের করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সচেতনতা অবলম্বনে শারীরিক দূরত্ব মেনে চলার জন্য এবং মাস্কবিহীন ক্রেতার কাছে পণ্য বিক্রয় না করার জন্য অনুরোধ জানান মৌলভীবাজার জেলা ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মোঃ আল আমিন।