646 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

লকডাউন খুলে দেওয়া কতটুকু সমীচীন?

করোনা ভাইরাস কি ,?কিভাবে ছড়ায়এবং কি তার প্রতিরোধ ব্যবস্থা ? এ বিষয়ে মাইকিং এর পাশাপাশি , জনপ্রিয় অভিতো অভিনেত্রিদের দিয়ে ছোট ছোট সর্ট ফিল্ম নির্মাণ করা যেতে পারে ।  কারন, মানুষ শুনা থেকে দেখতেই বেশি পছন্দ করে।
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1
    Share

রাবেয়া জাহান: বাংলাদেশের বেশিরভাগ মানুষ এতটাই অসেচতন যে, যতোই সতর্কতা আর সাবধানতা অবলম্বন করে লক ডাউন খোলা হউক না কেন এর পরিণতি ভয়াবহ রকমের অনিশ্চিত । এক দল মানুষ রয়েছে , যারা দেশের অবস্থা সক্রিয় দেখলে , মনে করে  করোনা ভাইরাস দেশ থেকে  বিদায় নিয়েছে, আর তাই সামাজিক ঘনিষ্ঠতা আগের চেয়ে, আরো বেশি পরিমাণে বাড়তে থাকে।

লক ডাউন খুলে দিলে আক্রান্তের সংখ্যা কি পরিমাণ বাড়তে পারে, তা ইতিমধ্যেই পরিক্ষিত।    কিন্তু দেশের অর্থনীতি এবং খেটে খাওয়া মানুষের কথা বিবেচনা করে লক ডাউন হয়তো খুলে দেওয়াটাই উচিত, তবে মানুষের মাঝে প্রতিনিয়তই এই বাণী প্রচার হতে হবে, করোনা ভাইরাস আমাদের ছেড়ে যায়নি, বরং আগের চেয়ে আরো শক্তভাবে  অবস্থান নিয়েছে । তাই, কোনো প্রকার আনন্দ ভ্রমন না করে, সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে হবে।

ইউরোপ এবং এশিয়ার শিল্পোন্নত দেশগুলোতে লক ডাউন খুলে দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু ঐসব দেশ আর আমাদের দেশের অবস্থা একেবারেই ভিন্ন । সেসব দেশের কর্মীরা কর্মক্ষেত্রে শারীরিক সুস্থতার নিশ্চয়তা নিয়ে প্রবেশ করছে , এবং পাশাপাশি , যারা আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে এসেছিল, তারা নিজ থেকেই গৃহবন্দি থাকছে।

কিন্তু বাংলাদেশে এমন অহরহ মানুষ পাওয়া গিয়েছে, যারা করোনা ভাইরাস পজিটিভ জেনেও বিভিন্ন জায়গায় চলাফেরা করেছে , এবং বিষয়টি গোপন  রেখেছে ।  সামাজিক বিভিন্ন আচার অনুষ্ঠান, যেগুলো বাদ দেওয়া সম্ভব, সেসব কিছু ও  মানুষ করে যাচ্ছে। বিষয়টি এমন হচ্ছে, মানুষকে যে কাজে নিষেধাজ্ঞা দেওয় হয়,  সেই কাজ লুকোচুরি করে , আরো বেশি করে করার প্রতি মানুষের  আগ্রহ  বেড়ে যায়।

করোনা ভাইরাস কি ,?কিভাবে ছড়ায়এবং কি তার প্রতিরোধ ব্যবস্থা ? এ বিষয়ে মাইকিং এর পাশাপাশি , জনপ্রিয় অভিতো অভিনেত্রিদের দিয়ে ছোট ছোট সর্ট ফিল্ম নির্মাণ করা যেতে পারে ।  কারন, মানুষ শুনা থেকে দেখতেই বেশি পছন্দ করে।

করোনা ভাইরাস সম্পর্কিত সরকারী আইন ভঙ্গ করলে  এবং স্বাস্থ্য বিধির নিয়ম না মানলে  শারীরিক শাস্তি এবং আর্থিক জরিমানার ব্যবস্থা করা যেতে পারে, কিন্তু এই শাস্তি সবার উপর সমানভাবে কার্যকর হয় কিনা, তাই ভাবার বিষয়। কিছু মানুষ নিয়ম ভঙ্গ করে সবসময় পার পেয়ে যায়। তারা অনিয়মের পথটাকে সুগম করে দেয় । অন্যদিকে  সকল শাস্তি আর জরিমানার ভার নিতে হয়, সকল অসহায়, গরীব এবং নিপীড়িত  মানুষদের। তাই , মাঠ পর্যায়ে আইন প্রয়োগের বিষয়টি আরো শক্তভাবে স্থাপন করা উচিত। আইন ভঙ্গকারী , যেকোনো ব্যক্তিকে শাস্তির আওতায় আনতে হবে, আর তা সম্ভব   না হলে কোনো বিধি নিষেধ না থাকলেই ভালো হয়।

  • 1
    Share
  • 1
    Share