260 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

লাকসামে মাদক সেবনে বাধা দেয়ায় বসত ঘরে হামলা ভাংচুর, লুটপাট

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মশিউর রহমান সেলিম, লাকসাম: কুমিল্লার লাকসাম পৌরশহরের কলেজপাড়া এলাকায় শুক্রবার রাতে মাদক সেবনে বাঁধা দেয়ায় জাফর আলীর বাড়ীতেহামলা চালিয়ে বসত ঘর ভাংচুর ও লুটপাট করেছে বহিরাগত দূর্বৃত্তরা।

এতে ওই চক্রটি নগদ টাকা, স্বর্নালংকার ও মোবাইল সেটসহ প্রায় ৩ লক্ষ টাকার মালামাল নিয়ে পালিয়ে যায়। এ নিয়ে এলাকার জনমনে আতংক বিরাজ করছে।

স্থানীয় লোকজন ও ক্ষতিগ্রস্থ জাফর আলী জানায়, শুক্রবার রাতে আমার বাড়ীর সামনে ডাকাতিয়া নদীর ঘাটলায়
বহিরাগত কিছু যুবক মাদক সেবন করছে। আমি তার প্রতিবাদ করলে তারা ওইখান থেকে চলে যায়। প্রায় আধাঘন্টার পর
দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে ওইমাদক চক্র আমার বসত ঘরে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাংচুর ও লুটপাট করে।

আমরা তাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুললে ওই দূর্বৃত্তরা আমাকে এবং স্ত্রীর রুনা আক্তার, আমার শ্যালক জাবেদ ও আমার মেয়ে জেরিনকে বেদড়ক মারধর করে এবং ঘরে থাকা নগদ টাকা, স্বর্নলংকার, ৩টি মোবাইল সেটসহ প্রায় ৩ লাখ টাকার মালামাল নিয়ে যায়।

এ সময় আমাদের আত্মচিৎকারে আশে পাশের লোকজন ছুটে আসলে দূর্বৃত্তরা পালিয়ে যায় এবং গুরুতর আহত আমার মেয়ে
জেরিনকে লাকসাম সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছি। স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোহাম্মদ আবু ছায়েদ বাচ্চু জানায়, বিভিন্ন মাধ্যমে ঘটনাটি শুনে তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে যাই এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনের চেষ্টা করি কিন্তু তা অবনতি ঘটতে থাকলে সাথে সাথে থানা পুলিশকে ফোন দেই। অল্প কিছুক্ষনের মধ্যে লাকসাম থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করে। তবে ওই ঘটনাটি অত্যন্ত দুঃখজনক।

এ ব্যাপারে লাকসাম থানা পুলিশের একটি সূত্র জানায়, ঘটনাটি বিভিন্ন মাধ্যমে আমরা শুনে তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে গিয়ে এলাকার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনি। এখনও কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।