165 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

শতভাগ যাত্রী নিয়ে চলছে গণপরিবহন

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

পথিক রিপোর্ট: কোনোভাবেই কমছে না করোনাভাইরাসে মৃত্যুর সংখ্যা। উন্নতি হচ্ছে না করোনা পরিস্থিতির। এর মধ্যেই বিধিনিষেধ শিথিল করেছে সরকার। ধারণক্ষমতার শতভাগ যাত্রী নিয়ে ১৯ দিন পর আবারও সড়কে চলতে শুরু করেছে গণপরিবহন। আজ বুধবার ভোর থেকে রাজধানীতে গণপরিবহন চলতে শুরু করে।এর আগে অর্ধেক গণপরিবহন সড়কে নামিয়ে তাতে শতভাগ যাত্রী পরিবহনের নির্দেশনা দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে সরকার। বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) গতকাল মঙ্গলবার এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, মোট পরিবহনের অর্ধেক চলাচল করবে। প্রতিটি জেলায় স্থানীয় প্রশাসন অর্ধেক বাস চলাচলের সংখ্যা ঠিক করবে, দাঁড়িয়ে যাত্রী পরিবহন করা যাবে না। দুই আসনে এক যাত্রী এবং ৬০ শতাংশ ভাড়া বৃদ্ধির বিধানও থাকছে না। অর্থাৎ স্বাভাবিক সময়ের ভাড়ায় ফিরে যাচ্ছে গণপরিবহন।তবে রাস্তায় অর্ধেক গাড়ি চলাচল নির্ণয় করা কঠিন হবে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ। তিনি বলেছেন, প্রজ্ঞাপন অনুযায়ীতবে, মোট পরিবহন সংখ্যার অর্ধেক চলাচল করবে। এক্ষেত্রে এক মালিকের কয়টি গাড়ি আছে বা কতটি গাড়ি চালাচ্ছে দেশব্যাপী এ বিষয়টি নির্ণয় করা একদিকে যেমন কঠিন হবে অন্যদিকে শ্রমিকরাও বেকার থাকবে। সেইসাথে মালিকরাও ব্যবসায়িকভাবে চরম ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

অর্ধেক গাড়ি চলাচল করলে পরিবহন সংকট দেখা দেবে এবং যাত্রীর চাপ বাড়বে উল্লেখ করে, পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব বলেন এতে করে সংক্রমণ বাড়ার সম্ভাবনা থাকবে। এসব দিক বিবেচনা করে মোট পরিবহন সংখ্যার অর্ধেক চলাচলের সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে সব গাড়ি চলাচলের সিদ্ধান্ত গ্রহণের জন্য সরকারের প্রতি অনুরোধ জানান তিনি।

এইচ.কে.জে