148 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

শনাক্তের নমুনা দিতে এসে লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা যুবকের মৃত্যু

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ  ব্রাহ্মণবাড়িয়া করোনাভাইরাস শনাক্তের নমুনা দিতে এসে লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় হঠাৎ অচেতন হয়ে ইকবাল (৪৩) নামে এক যুববেক মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (২৮ জুলাই) সকাল পৌনে ৯টায় ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে। ইকবাল সদর উপজেলার নাটাই উত্তর ইউনিয়নের বিহাইর গ্রামের সহিদুল ইসলামের ছেলে।

তার পরিবারের সদস্যরা পথিক নিউজকে জানান, গত এক সপ্তাহ ধরে ইকবাল জ্বর, ঠান্ডাসহ নানা রোগে আক্রান্ত হয়ে অসুস্থ ছিলেন। বুধবার তার করোনাভাইরাস পরীক্ষা করাতে হাসপাতালের বিএমএ ভবনে নিয়ে আসা হয়। সেখানে ফরম পূরণ করে লাইনে দাঁড়িয়ে নমুনা দেওয়ার জন্য অপেক্ষায় ছিলেন তিনি। এ সময় তিনি অচেতন হয়ে মাটিতে ঢলে পড়েন। পরে তাকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে চিকিৎসক ইসিজি করে মৃত্যুর বিষয়টি পথিক নিউজকে নিশ্চিত করেন।

২৫০ শয্যাবিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক সোলায়মান মিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ইকবাল নামের ব্যক্তিটি করোনাভাইরাস সাসপেক্টেট ছিলেন। সকালে হাসপাতালে করোনা পরীক্ষা করার জন্য লাইনে দাঁড়িয়ে ছিলেন। এই অবস্থা তিনি অচেতন হয়ে ঢলে পড়লে জরুরি বিভাগে নিয়ে আসা হয়। ইসিজি করার পর রিপোর্টে তাকে মৃত পাওয়া যায়।

এ পর্যন্ত জেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৯০ জন। যার মধ্যে সদর উপজেলায় ২৮ জন, আখাউড়া উপজেলায় ১৩ জন, বিজয়নগর উপজেলায় ৩ জন, নাসিরনগর উপজেলায় ৫ জন, বাঞ্ছারামপুর উপজেলায় ৪ জন, নবীনগর উপজেলায় ১৮ জন, সরাইল উপজেলায় ৫ জন, আশুগঞ্জ উপজেলায় ১১ জন ও কসবা উপজেলায় ৩ জন মারা গেছেন।

এ পর্যন্ত জেলায় ৪৫ হাজার ৬০৪ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৬ হাজার ৯১১ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছেন। আক্রান্তের মধ্যে সদর উপজেলায় ২ হাজার ৭১৩ জন, আখাউড়া উপজেলায় ৩৯৩ জন, বিজয়নগর উপজেলায় ১৮২ জন, নাসিরনগর উপজেলায় ১৮৭ জন, বাঞ্ছারামপুর উপজেলায় ৪৬২ জন, নবীনগর উপজেলায় এক হাজার ০৮৮ জন, সরাইল উপজেলায় ৩৪৩ জন, আশুগঞ্জ উপজেলায় ৬৬২ জন ও কসবা উপজেলায় ৮৮১ জন রয়েছেন।

এ ছাড়া জেলায় সুস্থ হয়েছেন ৪২৭০ জন। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ১৮৩৬ জন, আখাউড়া উপজেলায় ২৬৫ জন, বিজয়নগর উপজেলায় ১৪২ জন, নাসিরনগর উপজেলায় ১৪১ জন, বাঞ্ছারামপুর উপজেলায় ২৬৪ জন, নবীনগর উপজেলায় ৫৩০ জন, সরাইল উপজেলায় ২১১ জন, আশুগঞ্জ উপজেলায় ৪১৩ জন ও কসবা উপজেলায় ৪৫০ জন রয়েছেন।