200 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

শশুরবাড়ির পাশের পাটক্ষেত থেকে জামাইর লাশ উদ্ধার

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
মোঃ শরীফ বক্সঃ  ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলায় শ্বশুরবাড়ির পার্শ্ববর্তী পাটক্ষেত থেকে জামাইয়ের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
বুধবার সকালে উপজেলার চুন্টা ইউনিয়নের ঘাগরাজোড় এলাকা থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।
নিহত জামাইয়ের নাম আব্দুল জলিল মিয়া (৪০)। তিনি উপজেলার চুন্টা ইউনিয়নের লোপাড়া গ্রামের আব্দুল মতিনের ছেলে। জয়নাল মিয়া একই ইউনিয়নের  ঘাগড়াজোড় গ্রামের, আসিদ মিয়ার মেয়েকে দ্বিতীয় বিয়ে করে শ্বশুরবাড়িতে থেকে রিকশা চালাতেন। মাঝে মধ্যে দিনমজুরের কাজও করতেন।
এর আগে তিনি কালীকচ্ছ ইউনিয়নের চানপুর গ্রামের আবুল কাশেমের মেয়ে সুমরাজ বেগমকে প্রথম বিয়ে করেন।
নিহতের দ্বিতীয় স্ত্রী সুইটি বেগম জানান, মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে ঘাগরাজোড় এলাকার শ্বশুরবাড়ি থেকে বের হয়ে জয়নাল আর বাড়ি ফিরে আসেননি। সম্ভাব্য সব জায়গায় খোঁজখবর নিয়েও কোনো সন্ধান পাননি।
পর দিন বুধবার সকালে ঘাগড়াজোড় এলাকার শ্বশুরবাড়ির পাশেই একটি পাঠক্ষেতে লাশ পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয় লোকজন। খবর পেয়ে শ্বশুরবাড়ির লোকজন সেখানে গিয়ে লাশ জয়নাল মিয়ার বলে শনাক্ত করেন। পরে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।
এ ব্যাপারে চুন্টা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান বলেন, ঘটনাটি আমি শুনেছি। যারা তাকে নির্বিচারে হত্যা করেছে সঠিক তদন্তের মাধ্যমে এর বিচার চাই। এবং নির্দোষ কাউকে যেন হয়রানি করা না হয়।
এ ব্যাপারে সরাইল থানার ওসি মো. আসলাম হোসেন বলেন,  লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। তবে আমরা এখনও কোনো অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেব।
পথিক নিউজ/ এম.এইচ