473 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

শেখ হাসিনা সড়কনির্মানের মধ্য দিয়ে স্বপ্ন পূরণ হয়েছে বিজয়নগর বাসীর ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

রাবেয়া জাহানঃ অবশেষে বহ প্রতিক্ষিত সড়ক শেখ হাসিনা সড়কনির্মানের মধ্য দিয়ে স্বপ্ন পূরণ হয়েছে বিজয়নগর বাসীর । বিজয়নগর উপজেলায় বর্তমানে ১০টি ইউনিয়ন রয়েছে। কিন্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরে আসার জন্য বিজয়নগর বাসিন্দাদের দীর্ঘ পথ পাড়ি দিতে হতো। এমনকি সারাদিন অতিবাহিত হয়ে যেতো এই আসা যাওয়ার মধ্য দিয়ে।  । বিজয়নগর বাসীদের দুর্ভোগ এবং ভোগান্তির শেষ ছিল না। জনগণের এই দুঃখ দুর্দশা দূর করতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা এবং বিজয়নগর উপজেলার মাননীয় সংসদ সদস্য জননেতা র, আ, ম উবায়দুল মুক্তাদির চৌধূরির দীর্ঘদিনের প্রচেষ্টায় নির্মিত হচ্ছে স্বপ্নের সড়ক, ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহর থেকে বিজয়নগর পর্যন্ত শেখ হাসিনা সড়ক ।

বিজয়নগর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে আগত যাত্রীরা ব্রাহ্মনবাড়িয়ার সদর উপজেলায় দ্রুততম সময়ে পৌছতে পেরে অত্যন্ত আনন্দিত। অনুভূতি প্রকাশের ভাষা নেই তাদের, আনন্দে তারা আত্মহারা।

১২০ কোটি টাকা ব্যায়ে শেখ হাসিনা সড়ক নির্মানের কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে। এই পল্লী সড়কের উন্নয়নে তিনটি ব্রীজ নির্মিত হচ্ছে। একটি হচ্ছ্র তিতাস নদীর উপর ৩১৫ মিটার পি এস সি গার্ডার ব্রীজ। দ্বিতীয়টি লইস্কর  খালের উপর অবস্থিত ৩০৮ মিটার দীর্ঘ লস্কর ব্রীজ। এবং ১৭৫ মিটার দীর্ঘ তৃতীয় ব্রীজটি অবস্থিত চম্পক নগর শিবিরে।

বিজয়নগরে রয়েছে কালাছড়া চা বাগানে নাম না জানা অজানা শহীদদের গণ কবর । বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে এখানে অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ যুদ্ধসংগঠিত হয়েছিল । মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে সশস্ত্র যুদ্ধের মাধ্যমে ১৯ নভেম্বর এ উপজেলার পাহাড়পুর ইউনিয়নের মুকুন্দপুর এলাকাটি মুক্ত হয়েছিল। যা মুকুন্দপুর দিবস হিসেবে প্রতি বছর পালন করা হয়ে থাকে। তা ছাড়া স্বাধীন বাংলাদেশের বিজয়ের পতাকা এ ইউনিয়ন দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছিল। ২০১০ সালে বিজয়দিবস উদযাপনকালে এ উপজেলার নামকরণ করা হয় বিজয়নগর। এ সড়ক নির্মিত হলে বিজয়নগরের অগণিত  মানুষের দূর্ভোগ দূর হবে এবং তারা  সরাসরি উপকৃত হবেন।এই সড়কটি আসলেই একটি স্বপ্নের সড়ক, যে স্বপ্ন  ব্রাহ্মণবাড়িয়া এবং বিজয়নগরের মধ্যকার সকল দুরত্বের অবসান ঘটিয়েছে।  এত বছরে যা সম্ভব হয়নি , সেই অসাধ্যকর কাজটি আজ সম্ভব হতে যাচ্ছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ৩ আসনের সংসদ সদস্য , মাননীয় এমপি মহোদয় র আ ম উবায়দুল মুক্তাদির চৌধূরির হাত ধরে। তিনি বলেন , এই শেখ হাসিনা সড়ক   শুধু বিজয়নগরবাসীদের স্বপ্ন নয়, এই সড়ক আমারো স্বপ্ন। আমি শুধু জনগণের চাহিদা পূরণের চেষ্টা করেছি।