560 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

শেরে মিল্লাত ওবায়দুল হক নঈমীর মৃত্যুতে বাংলাদেশ ইসলামী যুবসেনার শোক প্রকাশ।

  • 502
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    502
    Shares

মুহাম্মদ রফিকুল ইসলামঃ- 

আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আত বাংলাদেশ এর চেয়ারম্যান ও এশিয়া বিখ্যাত দীনি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান চট্টগ্রাম জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়া মাদ্রাসার শায়খুল হাদিস শেরে মিল্লাত আল্লামা মুফতি ওবাইদুল হক নঈমী হুজুর (৭৮) আর আমাদের মাঝে নেই। তিনি আজ ০৬ জুলাই সোমবার বিকাল ৫ টায় হাসপাতালে নেওয়ার পথে ইন্তেকাল করেন (ইন্না-লিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ৫ ছেলেসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। তিনি দীর্ঘদিন যাবত  বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন।

আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আত এর চেয়ারম্যান উস্তাজুল ওলামা শেরে মিল্লাত আল্লামা মুফতি ওবায়দুল হক নঈমী হুজুরের মৃত্যুতে বাংলাদেশ ইসলামী যুবসেনার পক্ষ থেকে হুজুরের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর শোক ও সমবেদনা জ্ঞাপন করে বিবৃতি দিয়েছেন।

বিবৃতিতে যুবসেনা কেন্দ্রীয় পরিষদের সভাপতি আলহাজ্ব গোলাম মুহাম্মদ ভুঁইয়া মানিক বলেন, আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আত বাংলাদেশ এর চেয়ারম্যান শেরে মিল্লাত আল্লামা মুফতি ওবাইদুল হক নঈমী হুজুর দেশব্যাপী ইসলামের শ্বাশত মূলধারা আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আতের প্রচার প্রসার ও দ্বীনি শিক্ষা বিস্তারে অনন্য ভূমিকা রেখেছেন। হুজুরের হাতে গড়া দেশে হাজারো আলেম রয়েছে। হুজুরের আকস্মিক মৃত্যুতে সুন্নী জনতা একজন সর্বোচ্চ অভিভাবককে হারিয়েছেন। তাঁর ইন্তেকালে সুন্নী অঙ্গনে যে শূন্যতার সৃষ্টি হয়েছে তা অপূরণীয়। সুন্নী জনতা তাঁর অবদানকে চিরদিন কৃতজ্ঞতার সাথে স্মরণ করবে। তিনি দেশের একমাত্র সুফি মতাদর্শের বিশ্বাসী ছাত্র রাজনৈতিক সংগঠন বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রসেনার প্রতিষ্ঠাতা পৃষ্ঠপোষক ও বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য ছিলেন।

 

বিবৃতিতে যুবসেনা কেন্দ্রীয় পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মুহাম্মদ আবু আজম বলেন, গত ২ জুন দেশবিখ্যাত আলেম ইমামে আহলে সুন্নাত আল্লামা নূরুল ইসলাম হাশেমী হুজুর ইন্তেকাল করেন। আর একমাসের ব্যবধানে সুন্নী জনতা আহলে সুন্নাত ওয়াল জামা’আত বাংলাদেশ এর চেয়ারম্যান শেরে মিল্লাত আল্লামা মুফতি ওবাইদুল হক নঈমী হুজুরকে হারাল। করোনাকালে এ বিয়োগ মেনে নেওয়ার মত নয়। ইসলামের নামে অপব্যখ্যা সৃষ্টিকারী, জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে শেরে মিল্লাত আল্লামা মুফতি ওবাইদুল হক নঈমী হুজুর আজীবন লড়াই করেছেন। ২০১৩ সালে জামায়াত-শিবির কর্তৃক দেশের যে ১০ জন শীর্ষস্থানীয় আলেমকে হত্যা করার হুমকি দিয়েছিল, শেরে মিল্লাত আল্লামা মুফতি ওবাইদুল হক নঈমী হুজুর তাঁর অন্যতম একজন। তিনি আরো বলেন, ৯০% মুসলমানের দেশ আমার দেশ। আর সে দেশের ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া দেশবিখ্যাত আলেম এর মৃত্যুর সংবাদ প্রচার না করে লাইভের মাধ্যমে সঙ্গীত শিল্পীর মৃত্যুর সংবাদ প্রচারে ব্যস্ত। যেখানে একজন আলেমের মৃত্যুতে একটি জাহানের মৃত্যু হয় আর একজন সঙ্গীত শিল্পীর মৃত্যুতে সমাজ জাহান্নামের ইন্ধন থেকে মুক্তি পায়।

 

শেরে মিল্লাত আল্লামা মুফতি ওবাইদুল হক নঈমী হুজুরের জানাযা আগামীকাল জোহর নামাজের পরে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও করোনা পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে ও প্রশাসনের অনুরোধে হুজুরের দীর্ঘদিনের প্রতিষ্ঠান চট্টগ্রাম জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়া মাদ্রাসার প্রাঙ্গণে ৬ জুন দিবাগত রাত ১২ টায় অনুষ্ঠিত হয়েছে।

  • 502
    Shares