132 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

সরাইলে নিখোঁজের ৪৬ ঘন্টা পর জামাল উদ্দিনের লাশ উদ্ধার

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

মোহাম্মদ মাসুদ, সরাইল। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে নিখোঁজের ৪৬ ঘন্টা পর জামাল উদ্দিন(৫৫) নামে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছেন সরাইল থানা পুলিশ। আজ সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) দুপুর ২টায় উপজেলার চুন্টা ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের লোপাড়া গ্রামের মৃত হাজী আলী মিয়ার পুত্র জামাল উদ্দিনের লাশ বাড়ির পাশের ডুবা থেকে উদ্ধার করা হয়। পরিবারের লোকজন ও

স্থানীয় এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা যায়, গত শনিবার বিকাল ৫ টার দিকে জামাল উদ্দিন বাজারে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হয়। রাত অবধি তিনি বাড়ি ফিরে না আসায় পরিবারের লোকজন সম্ভাব্য সকল জায়গায় খোঁজাখোঁজি করেও জামাল উদ্দিনের কোনো সন্ধান পাননি। পরদিন রোববার বিকালে নিখোঁজ জামাল উদ্দিনের স্ত্রী হেলেনা বেগম তাঁর স্বামী নিখোঁজের বিষয়ে সরাইল থানায় একটি সাধারণ ডায়রী (জিডি) করেন। জিডি নং ১০৩৩, তারিখঃ ১৯-০৯-২০২১। পরদিন সোমবার দুপুর ২ টায় নিখোঁজ জামাল উদ্দিনের লাশ বাড়ির পাশের ডুবাতে নিকটাত্বীরা দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করেন। নিখোঁজ জামাল উদ্দিনের লাশ উদ্ধারের খবরে বিভিন্ন এলাকার লোকজন লাশ এক নজর দেখতে সেখানে ভীড় জমাতে দেখা যায়।

এ ব্যপারে নিহত জামাল উদ্দিনের স্ত্রী হেলেনা বেগম বলেন, শনিবার আসরের পর বাড়ি হয়ে আমার স্বামী আর বাড়ি ফিরে আসেননি। সকল জায়গায় খোঁজাখোঁজি করেও কোনো স৷ন্ধান না পেয়ে পরদিন রোববার বিকালে সরাইল থানায় জিডি করেছি। আজ সোমবার দুপুরে বাড়ির পাশের ডুবায় লাশ পাওয়া গেছে। তিনি আরও বলেন, এলাকার একাধিক ব্যক্তির সাথে আমার স্বামীর পূর্ব শুত্রুতা থাকায় তাদেরকে আমার সন্দেহ হয়। সন্দেহভাজনদের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করব। এ ব্যপারে স্থানীয় ইউপি মেম্বার মোঃ আবুল হাই বলেন, শনিবার বাদ আছর থেকে জামাল উদ্দিন নিখোঁজ থাকার বিষয়ে পরিবারের লোকজন আমাকে জানিয়েছে। পরে এ ব্যপারে থানায় জিডি করা হয়েছে। আজ দুপুরে বাড়ির পাশের ডুবায় লাশ পাওয়া গেছে। এ ব্যপারে চুন্টা ইউপি চেয়ারম্যান শেখ হাবিবুর রহমান বলেন, জামাল উদ্দিন নিখোঁজ হওয়ার বিষয়ে পরিবারে লোকজন আমাকে অবগত করেছিল। আজ দুপুরে বাড়ির পাশের ডুবায় লাশ পাওয়া গেছে। এ ব্যপারে সরাইল থানার অফিসার ইনচার্জ( ওসি) মোঃ আসলাম হোসেন বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। আমি বর্তমানে ঐ এলাকায় আছি। প্রাথমিকভাবে কোনো অভিযোগ পায়নি। অভিযোগ পেলে তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।