365 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

সাতক্ষীরায় লকডাউন বাস্তবায়নে রাস্তায় কঠর অবস্থানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আজহারুল ইসলাম সাদীঃ সাতক্ষীরায় কঠোর লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে, বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে একযোগে জেলার ৭ টি উপজেলায় মাঠে নেমেছে ম্যাজিষ্ট্রেট সেনাবাহিনী, বিজিবি ও পুলিশসহ আইনশৃখংলা বাহিনীর সদস্যরা। শুক্রবার (২ জুন) সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত সাতক্ষীরা শহরে মহড়া দিতে দেখা গেছে সেনাবাহিনীসহ আইনশৃখংলা বাহিনীর সদস্যদের। ঘোষিত লকডাউন বাস্তবায়নের লক্ষে কাঁচাবাজার ও নিত্যপ্রয়োজিনীয় জিনিষপত্রের বেচাকেনা বেলা ১১ টার মধ্যে শেষ করতে হচ্ছে। সতর্কতা অবলম্বন করে চললেও জেলায় করোনা আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পেয়ে চলেছে। সাতক্ষীরার সিভিল সার্জন ডাঃ হুসাইন শাফায়াত জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা উপসর্গে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এসময়ের মধ্যে ১৪৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৫৭ জনের পজেটিভ এসেছে। যার শতকরা হার ৩৮ দশমিক ৫১ শতাংশ। সাতক্ষীরা জেলায় এপর্যন্ত করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৭৪ জন। করোনা উপসর্গে মারা গেছেন ৩৫৪ জন। বর্তমানে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৮১৮ জন, এর মধ্যে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা আক্রান্তে ২২ ও ২৫৭ জন উপসর্গ নিয়ে ভর্তি আছেন। বেসরকারি হাসপাতালে ১৬জন করোনা আক্রান্ত ও ১২১ জন উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসাধীন আছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৫৫ জন। হোম আইসোলেশনে আছেন ৭৮০ জন। এ প্রসঙ্গে, সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হুমায়ুন কবির জানান, জেলায় সেনাবাহিনীর ১০ টি পেট্রোল টিম মোতায়েন করা হয়েছে। এর মধ্যে সাত উপজেলায় সাতটি ও রিজার্ভ রাখা হয়েছে আরো তিনটি পেট্রোল টিম। এছাড়া জেলায় তিন প্লাটুন বিজিবি ও পর্যাপ্ত সংখ্যক পুলিশ ও আনসার ব্যাটেলিয়ন সদস্য নামানো হয়েছে। জেলায় একজন করে ম্যাজিস্টে’র নেতৃত্বে ২২টি ভ্রাম্যমান আদালত টহল দিচ্ছে। তিনি আরো জানান, জেলাবাসীকে সরকার ঘোষিত বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে ঘর থেকে বাইরে না বের হওয়ার জন্য অনুরোধ জানানো হচ্ছে। অকারণে বের হলেই তাকে শাস্তির মুখোমুখি হতে হবে। শহরের অধিকাংশ দোকারপাট বন্ধ রয়েছে। লকডাউনে জরুরি সেবা প্রতিষ্ঠান খোলা রয়েছে। বন্ধ রয়েছে সকল প্রকার গণপরিবহন, তার পরেও শহরের বিভিন্নস্থানে কিছু মানুষের উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে।