288 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

স্বামীকে ফাঁসাতে ভ্রুণ নষ্ট করে ফ্রিজে রাখলেন স্ত্রী

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার বেলুহার গ্রামে স্বামীকে ফাঁসাতে গর্ভের পাঁচ মাস বয়সের ভ্রুণ হত্যা করে বর্বরতার আশ্রয় নিয়েছেন তার স্ত্রী। গত বুধবার প্লাস্টিকের কৌটায় ভ্রুণটি ওই গৃহবধূর প্রতিবেশীর ফ্রিজে পাওয়া যায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, তিন বছর পূর্বে বেলুহার গ্রামের সিরাজ ভূঁইয়ার কন্যা সুমাইয়া আক্তারের সঙ্গে গৌরনদী উপজেলার বিল্বগ্রাম এলাকার সাত্তার ঘরামীর ছেলে জামাল ঘরামীর বিয়ে হয়। সম্প্রতি তাদের দাম্পত্য কলহের কারণে অন্তঃস্বত্তা সুমাইয়া তার বাবার বাড়ি চলে আসেন।

সুমাইয়া জানান, বাবার বাড়িতে আশ্রয় নিয়ে স্বামীর সঙ্গে অভিমান করে ওষুধ সেবনের মাধ্যমে নিজ গর্ভের সন্তানের ভ্রুণ নষ্ট করার পর মৃত অবস্থায় সে ওই ভ্রুণ প্রসব করে। পরবর্তীতে ভ্রুণটি একটি প্লাস্টিকের কৌটার মধ্যে রেখে পাশের বাড়ির আব্দুর রশিদ ভূঁইয়ার ফ্রিজে রাখেন তিনি।

আব্দুর রশিদ ভূঁইয়ার মেয়ে নিলু জানায়, বুধবার সন্ধ্যায় ফ্রিজ পরিস্কার করতে গিয়ে প্লাস্টিকের কৌটা খুলে ভিতরে ভ্রুণ দেখতে পায়। ওই কৌটাটি আমাদের ফ্রিজে রেখেছিল সুমাইয়া আক্তার।

অভিযুক্ত সুমাইয়া আক্তার বলেন, বর্তমানে আমার স্বামী আমাকে ভরণ-পোষণ না দেওয়ার কারণে আমি আমার গর্ভের সন্তান নষ্ট করতে বাধ্য হয়েছি। এরপর ওই ভ্রুণটিকে আমি আদালতে হাজির করার উদ্দেশ্যে পাশের বাড়ির আব্দুর রশিদ ভূঁইয়ার ফ্রিজে রেখেছিলাম।

এ ব্যাপারে আগৈলঝাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মো. মাজহারুল ইসলাম জানান, পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তদন্ত করেছেন। পুরো ঘটনার তদন্ত করে পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।