470 বার দেখা হয়েছে বার পড়া হয়েছে
মন্তব্য ০ টি

৫ বছরের শিশুর যৌনাঙ্গ ঝলসে দেওয়ার অভিযোগে মামি গ্রেফতার।

ছবিঃঅনামিকা

  • 30
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    30
    Shares

অনলাইন ডেস্কঃ

বরিশালের গৌরনদীতে নানা বাড়িতে আশ্রিত থাকা এলমা নামের ৫ বছরের এক কন্যা শিশুর যৌনাঙ্গ গরম খুন্তি দিয়ে ঝলসে দিয়েছে বলে মামি শাহনাজ বেগমের (৩৪) বিরুদ্ধে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় পুলিশ শাহনাজ বেগমকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেপ্তার শাহনাজ বেগম গৌরনদীর উত্তর বিজয়পুর এলাকার রমজান সরদারের স্ত্রী। নির্যাতনের শিকার শিশুটির নাম লামিয়া। সে মামার বাড়িতে থাকতো। জানা গেছে, দুই শিশুর মারামারির ঘটনাকে কেন্দ্র ধরে নির্মম পৈশাচিক ঘটনাটি ঘটানো হয়েছে। শনিবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটলেও প্রকাশ পেয়েছে গতকাল বুধবার।এ ঘটনায় বুধবার সন্ধ্যায় বাবা সফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে শিশুটির মামি শাহনাজ বেগমকে আসামি করে গৌরনদী মডেল থানায় মামলা করেন। তিন বছর পূর্বে শিশুর বাবাকে ডিভোর্স দেয় শিশুটির মা আখি আক্তার। এরপর থেকে নানা বাড়িতে মায়ের সাথে বসবাস করে আসছে। শিশুর বাবা সফিকুল ইসলাম জানান- গত শনিবার বিকেলে শিশুটিকে গ্যাসের চুলায় খুন্তি গরম করে মাটিতে পাড়িয়ে ধরে লজ্জাস্থানে ছেঁকা দিয়েছে শাহনাজ। এতে শিশুটি গুরুতর জখম হয়েছে। ঘটনার পর ডাক্তার দেখানোর কথা বলে সবাই চলে গেছে এরপর বাড়িতে কেউ আসেনি।

গৌরনদী মডেল থানার পরিদর্শক মো. আফজাল হোসেন জানান, সন্ধ্যায় অভিযোগ পাওয়ার পরপরই শিশুটিকে উদ্ধার এবং অভিযুক্ত শাহনাজ বেগমকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সে শিশু নির্যাতনের কথা স্বীকার করেছে।

গৌরনদী মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. তৌহিদুজ্জামান জানান, অভিযোগ পাওয়ার পর শাহনাজ বেগমের বাবার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার ও শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়েছে। লামিয়াকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। শাহানাজ বেগমকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

পথিকনিউজ/অনামিকা

  • 30
    Shares
  • 30
    Shares