কুহুলির ফেক ফিল্ডিং এর কারনে আইসিসির কাছে অভিযোগ করবে বিসিবি

ভারতের বিপক্ষে ম্যাচে আম্পায়ার ও ম্যাচ অফিশিয়ালদের নানা সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। আর এ নিয়ে ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) কাছে অভিযোগ করা হবে বলে জানিয়েছেন বিসিবি পরিচালক ও মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস।

বুধবার (২ নভেম্বর) গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ওপেনার লিটন দাসের দুর্দান্ত শুরুর পর বাকিরা হাল ধরতে না পারায় ভারতের কাছে হেরেছে বাংলাদেশ। তবে ম্যাচটা এমন নাও হতে পারত। ম্যাচে বৃষ্টি শুরু হওয়ার আগের ওভারে অক্ষর প্যাটেলের বলে একটি ফেক ফিল্ডিং হয়েছিল বলে বিশ্বাস বাংলাদেশ দলের। সঙ্গে সঙ্গে আম্পায়ারকে ‘ফেক ফিল্ডিং’-এর কারণে ৫ রান না পাওয়ার অভিযোগ করেন নুরুল হাসান। কিন্তু তাতে সাড়া দেননি আম্পায়ার।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া এক ভিডিওতে দেখা গেছে, ম্যাচের সপ্তম ওভারে অর্শদীপ সিংয়ের থ্রো উইকেটকিপার দীনেশ কার্তিকের কাছে পৌঁছানোর আগেই ব্যাকওয়ার্ড পয়েন্টে থাকা বিরাট কোহলি থ্রো-এর মতো অঙ্গভঙ্গি করেন।

এদিকে ক্রিকেট আইনের ৪১.৫.১ ধারায় বলা আছে, ‘স্ট্রাইকার বল খেলার পর কোনো ফিল্ডার ইচ্ছাকৃতভাবে কথা বা কাজ দ্বারা যে কোনো ব্যাটারের মনোযোগ সরিয়ে দেয়ার বা ধোঁকা দেয়ার চেষ্টা করলে সেটি আনফেয়ার প্লে বলে বিবেচ্য হবে।’

এমন কিছু হলে তা আম্পায়ারদের সিদ্ধান্ত নেয়ার কথা ছিল। আর এমন ঘটলে বলটি ডেড ধরে ব্যাটিং দলকে পেনাল্টি হিসেবে ৫ রান যোগ করা হয়। তবে তা করা হয়নি। আর এদিকে বাংলাদেশ ম্যাচটা ভারতের কাছে হেরেছে ৫ রানেই।

এদিকে ম্যাচ শেষে সোহান বলেন, ‘মাঠ যে ভেজা, আপনারাও দেখছেন, বাইরে থেকে আমরাও দেখছি। ইভেনচুয়ালি আমার কাছে মনে হয় যখন আমরা কথা বলেছিলাম, একটা ফেক থ্রোও হয়েছিল। এটায় হয়তো ৫ রান পেনাল্টি হতে পারত। সেটা আমাদের দিকে আসতে পারত। দুর্ভাগ্যবশত সেটাও আসেনি।’

 

Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *