চুল কালো করতে কারিপাতা ও চা ব্যবহারের নিয়ম

লেখক:
প্রকাশ: ১ মাস আগে
চুল কালো করতে কারিপাতা ও চা ব্যবহারের নিয়ম

বর্তমানে কমবয়সেও অনেকের চুলে পাক ধরে। বিভিন্ন কারণে চুল পাকতে শুরু করে। আর এ সমস্যার সমাধানে অনেকেই বাজারচলতি চুলের প্রসাধনী ব্যবহার করেন। এমনকি চুল কালো করার কলপও ব্যবহার করেন।

 

এতে করে কয়েকদিন চুল কালো দেখালেও পরবর্তী সময়ে আবারও সাদা চুলগুলো বেরিয়ে আসে। আবার চুলেও ক্ষতি হয়। এর চেয়ে প্রাকৃতিক উপায়ে চুল কালো করলে চুলের ক্ষতির সম্ভাবনা কমে।

 

বিজ্ঞাপন

 

আসলে কোলাজেনের অভাবেই চুল দ্রুত ধূসর হতে শুরু করে। এছাড়া দূষণের কারণে চুলও ধূসর হতে শুরু করে। এক্ষেত্রে চুল গোড়া থেকে কালো করতে কারি পাতা ও কালো চা ব্যবহার করতে পারেন।

 

আসলে এই দুটি একসঙ্গে আপনার চুলের রং পরিবর্তন করতে পারে। এগুলো চুলের কোলাজেন বাড়াতে ও চুল কালো করতে সাহায্য করে। কীভাবে এই দুটি উপাদান ব্যবহার করে চুল কালো করবেন চলুন জেনে নেওয়া যাক-

 

বিজ্ঞাপন

 

 

প্রথমে কারিপাতা পিষে তাতে কালো চা মিশিয়ে নিন। কালো চায়ের জন্য, চা পাতা গরম করুন। এরপর ছেঁকে নিন ও কারিপাতা মিশিয়ে নিন।

 

বিজ্ঞাপন

 

তারপর ভালো করে চুলায় কিছুক্ষণ জ্বাল করুন। কিছুক্ষণ পর এতে সামান্য তেল মিশিয়ে চুলে লাগান। ৪৫ মিনিট রেখে তারপর চুল ধুয়ে ফেলুন।

 

কারি পাতা ও কালো চা ব্যবহারে চুলের রক্ত সঞ্চালন বাড়বে ও স্ক্যাল্পের উন্নতি ঘটবে। এগুলো আসলে ত্বকের ছিদ্র খুলে দেয় ও অক্সিজেন দিয়ে পুষ্টি জোগায়, যা চুলের রং উন্নত করে। এভাবে চুল কালো করতে সহায়ক।

 

এমনকি কারিপাতা ও কালো চা উভয়ই খুশকির সমস্যা কমাতে সহায়ক। এটি অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল যা মাথার ত্বক পরিষ্কার করার পাশাপাশি ত্বকের ছিদ্রও পরিষ্কার করে।

 

বিজ্ঞাপন

 

এভাবে খুশকির সমস্যা প্রতিরোধ করে। এছাড়া উভয়ই একসঙ্গে মাথার ত্বকের চুলকানি কমায় ও মাথার ত্বক শুষ্ক হওয়া রোধ করে।

 

সূত্র: প্রেসওয়্যার১৮

ইমি/পথিক নিউজ