চুল পড়ে মাথা টাক হতে পারে যে খনিজের অভাবে

লেখক:
প্রকাশ: ১ মাস আগে

নারী-পুরুষ উভয়েরই সৌন্দর্য বাড়ায় মাথার চুল। তবে চুলের বিভিন্ন সমস্যা কমবেশি সবাই ভোগেন। বিশেষ করে যাদের চুল পড়ার সমস্যা আছে তারা বেশি চিন্তিত হয়ে পড়েন।

 

আর সমস্যার সমাধানে বাজারের বিভিন্ন কেমিক্যালযুক্ত প্রসাধনী চুলে ব্যবহার করায় চুল পড়া আরও বাড়ে।

 

বিজ্ঞাপন

 

বর্তমানে ভুল জীবনধারণ, খাদ্যাভ্যাস, দূষণ ও মানসিক চাপের কারণে অকালে চুল পড়তে পারে।

এছাড়া চুলের জন্য প্রয়োজনীয় ভিটামিন কিংবা খনিজের ঘাটতির কারণেও চুল পড়ে মাথা টাক হয়ে যেতে পারে। যার মধ্যে জিংকের অভাব অন্যতম।

 

বিজ্ঞাপন

 

বিশেষজ্ঞদের মতে, ভিটামিন ডি ছাড়াও জিংকের অভাবও চুল পড়ার একটি বড় কারণ। আয়রনের অভাবে যেমন চুল পড়ে, ঠিক তেমনই জিংকের ঘাটতিও আপনাকে টাক করে দিতে পারে। জিংকের অভাবে চুলের ক্ষতি হয় ও চুল ভেঙে যায়।

 

 

একজন সুস্থ পুরুষের প্রতিদিন ১১ মিলিগ্রাম জিংক খাওয়া উচিত ও নারীদের প্রতিদিন ৮ মিলিগ্রাম জিংক খাওয়া উচিত।

 

বিজ্ঞাপন

 

জিংকের ঘাটতি পূরণে কী খাবেন?

 

মাশরুম

 

মাশরুমে পর্যাপ্ত পরিমাণে জিংক পাওয়া যায়। এজন্য খাদ্যতালিকায় মাশরুম রাখুন। এছাড়া এতে ক্যালসিয়াম, পটাসিয়াম, ফসফরাস ও প্রোটিন থাকে।

 

 

চিনাবাদাম

 

চিনাবাদামে আয়রন, পটাশিয়াম, ফলিক অ্যাসিড, ভিটামিন ই, ম্যাগনেসিয়াম ইত্যাদি থাকে। এর সঙ্গে জিংকও প্রচুর পরিমাণে থাকে। তাই চুল মজবুত করতে নিয়মিত চিনাবাদাম খান।

 

বিজ্ঞাপন

 

কুমড়ার বীজ

কুমড়ার বীজে প্রচুর পরিমাণে জিংক ও আয়রন পাওয়া যায়। এটি চুলের জন্য খুবই চমৎকার কাজ করে। কুমড়ার বীজ ছাড়াও কুমড়া, তিলের মতো বীজেও প্রচুর পরিমাণে জিংক পাওয়া যায়। এছাড়া এতে প্রচুর পরিমাণে ফাইবারও থাকে।

 

সূত্র: ওয়েবএমডি

ইমি/পথিক নিউজ