W3Schools.com  

বিয়ের আগে ন্যাড়া হতে হয় এই গ্রামের নারীদের

লেখক:
প্রকাশ: ৪ মাস আগে
বিয়ের আগে ন্যাড়া হতে হয় এই গ্রামের নারীদের

বিয়ে সব মেয়ের জন্যই একটু স্পেশাল। জীবনের সবচেয়ে বিশেষ এই দিনে কীভাবে সাজবেন, কী পরবেন তা নিয়ে থাকে নানান জল্পনা কল্পনা। তবে আমাদের বিয়ে নিয়ে এমন ভাবনা থাকলেও বিশ্বের এমন এক গ্রাম আছে যেখানকার মেয়েদের তার উল্টো। সেখানে তাদের বিয়ের আগেই মাথার সব চুল ফেলে ন্যাড়া হতে হয়।

 

মেয়েদের সবচেয়ে শখের এবং প্রিয় জিনিস এই চুল। যদি বিয়ের জন্য তা ত্যাগ করতে হয় তাহলে দুঃখের সীমা থাকে না। তবে আফ্রিকার কেনিয়ার বোরানা জনজাতির মধ্যে বিয়ের এমনই রীতি আছে। একেক দেশের বিয়ের রীতি একেক রকম। আমাদের বাঙালির যেমন মেহেন্দি, গায়ে হলুদ, বিয়ে বউভাত, এখন আবার যোগ হয়েছে রং খেলা, সংগীত আরও কত কি।

 

বিজ্ঞাপন

 

সেখানে আফ্রিকার বোরানা জনজাতির মধ্যে বিয়ের এক অদ্ভুত প্রথার চল রয়েছে। এই জনজাতির মেয়েরা বিয়ের দিন মাথা কামিয়ে নেড়া হয়ে যান। এর কারণ জানলে চমকে উঠবেন আপনিও! আফ্রিকার বোরানা জনজাতির মেয়েরা বিয়ের আগে মাথা নেড়া করেন এবং বিয়ের পিড়িতে মাথা নেড়া অবস্থাতেই বসেন। কারণ? দের মধ্যে প্রচলিত বিশ্বাস, মাথা নেড়া করলে ভালো স্বামী পাওয়া যাবে।

 

 

 

বিজ্ঞাপন

 

কিন্তু এই নিয়ম শুধু বোরানা গিষ্ঠীর মেয়েদের জন্যই। এই জনজাতির ছেলেদের জন্য আবার উলটো নিয়ম। ছেলের যত বড় ও পোক্ত চুল থাকবে, যে তত বেশি ‘আকর্ষক’। নারীদের কাছে তার কদরও বেশি। অর্থাৎ যে পুরুষের যত বড় চুল তিনি পাত্র হিসেবে ততই উপযুক্ত।

 

আফ্রিকার ইথিওপিয়া ও সোমালায় মূলত বোরানা জনজাতির বাস। পুরুষরা চাষবাস, পশুপালন করেন। নারীরা মূলত বাড়ির কাজ সামলান। এই জনজাতির পুরুষদের কাছে তাদের ঘন-লম্বা চুল খুব প্রিয়। নিয়মিত ঘি-মাখন লাগান। অন্যদিকে নারীরা মাথার মাঝখানটা কামিয়ে ফেলেন। দু-পাশে দুটো ঝুঁটি বাধেন।

 

বিজ্ঞাপন

 

 

 

এই জনজাতির পুরুষেরা একের বেশি বিয়ে করতে পারেন। অনেকসময় একাধিক নারী একইসঙ্গে স্বামীকে ভাগ করে নেন। মেয়েদের ছোট থেকে বাড়ির কাজ শেখানো হয় যাতে তারা বিয়ের পর ঘর সংসার সামলাতে পারেন। নারীরা সন্তান জন্ম, পালন এবং সংসারের কাজেই ব্যস্ত থাকেন। অন্যদিকে পুরুষরা তাদের ভরণপোষণের জন্য কৃষিকাজ, গরু পালন করেন।

 

 

সূত্র: টাইমস নাও, ডেইলি মেইল

ইমি/পথিক নিউজ